হেমেন্দ্র গ্রন্থাবলী [ভাগ-৫] | Hemendra Granthabali [Pt. 5]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
Ye. a জজ...-» -প্ুনিয়া পিসীমা বলিলেন, “তোদের ছোটলোকের ঘরে যা” হয়, SHA লোকেরও তাই হবে 1”“Or কেন ₹ বে! ভদ্র লোকের ঘরে মেয়ের বিয়ে উঠে যাবে; মেরেরা স্বয়ম্বরা হবে ।*“তুই চুপ কর ।”“ত' করছি? কিন্তু--তুমি দাদা বাবুর বিয়ের কথা বলতে দাদা বাবু কি বল্লে ?”“সে কথা আজ পাড়তেই পারি-নি ।”“কেন গা ?*“মেয়ে যে বাপের কাছ ছাড়ে না !”“or ve গে। তুমিআর দেরী কার না স্মবিধে দেখে কলে ফেল । মনটা ত তৈরী করতে ₹বে [” .“SYS হবে 1”কুমুদা fatarcs বুঝাইতে লাগিল, স্যীরের বিবাহের উদ্যোগ না করায় তিনিই অপরাধী হইতে- cea; কেন না, তিনি Broth হইয়া বিবাহ না দিলে সে ত আর নিজে বলিতে পারিবে না! পিসীমা তাহাই বুঝিলেন বটে, কিন্তু তবুও স্মধীরের ota দেখিয়া সে প্রন্ডাব করিবার ay ats সাহস সংগ্রহ করিয়া উঠিতে পারিলেন না। তবে তিনি সাহস সংগ্রহ করিবার চেষ্টা করিতে লাগিলেন।©পিসীম| যে কাযটা খুব সহজে শেষ হইবে মনে করিয়াছিলেন, Stel তত সংজে সম্পন্ন হইল না। শতরঞ্চ খেলার ঘোড়ার কিস্তি দিয়া “ate” কর সহজ হয় না। ঘটক-ঘটকী-_বিশেষ ঘটকীরা গতায়াত করিতে লাগিল-_পিদীমা তাহাদিগকে গাড়ী ভাড়া দিতে মুক্তহস্ত হইলেন, কিন্তু তেমন মনের মত সম্বন্ধ পাওয়া যাইতে বিলম্ব হইতে লাগিল। সম্বন্ধ হয় স্মধীরের, নহে ত মযৃণালিণীর, aces উতয়েরই অপসন্দ হয়। এক এক জন ঘটকী ত বলিতেই লাগিল,--“স্পষ্ট ক'রে বল, মেয়ের বিয়ে এখন তোমরা দেবে না। নইলে যে সব সম্বন্ধ পেলে লোক লুফে নেয়, সে সবও তোমাদের কাছে ভাল বোধ হয় না!” এক জন ঘটকী উপহাসের সঙ্গে বলিল, “মেয়ে ভাল SY ভাল মেয়ে যে আর নেই এমন ত নয়! দেওয়ার কথাও ত খুলে বল না--দেবে তা জানি, কিন্তু ক” হাজার দেবে তা”ও বল না। আবার এমন কথাও গুনতে পাই, নগদ দিতে তোমাদের আপত্তি: আছে ।”হেমেন্-গ্রন্থাবলীসেই কথায় পিসীমা রাগ করিয়া বলিলেন, “তোমার যত বড় মুখ নয় তত বড় কথা ! তুমি ভাল সম্বন্ধ আন-_দেখবে টাকায় আটকায় কি aii?বাস্তবিক feat সম্বন্ধে সে ASB হইতে পারে, সুধীর তাহা স্থির করিতে পারিতেছিল al এবং সেই জন্যই মৃণালিনীর মতের উপর নির্ভর করিতে বাধ্য হইতেছিল। মুণালিনীর মতের উপর সে যে নির্ভর করিতে পারে, সে বিশ্বাদও তাহার ছিল; কারণ, সে জানিত-_মৃণালিনী cage আপনার sata মতই স্নেহ করেন এবং তিনি অসাধারণ বিষয়বুদ্ধি" সম্পন্না। তিনি প্রত্যেক সম্বন্ধের ala অসুবিধা পু্খানুপুঙ্খরূপে বিচার sfaal দেখিতেছিলেন। তিনি জানিতেন, faye সম্বন্ধ পাওয়া যায় না; কিন্ত তবুও aida প্রতি অসাধারণ crea তিনি স্থির করিয়াছিলেন, যতটা সম্ভব fads সম্বন্ধ দেখিবেন।কাযেই বিলম্ব হইতে লাগিল। আর বিলম্বের সঙ্গে সঙ্গে পিসীম| বিরক্ত হইতে লাগিলেন। তিনি কুমুদাকে বলিতে লাগিলেন, “এ যেন ঠক বাছতে গা উজাড়! আধিক্যেতা দেখে আর বাচিনে। বলে, এই এতখানি বয়েস, কত সম্বন্ধই দেখলাম! এক কথা মেয়ের অদৃষ্ট। তা” না--কোন Tae পসন্দ হয় না !*তাঁহার বিরক্তির আর একটা কারণ ছিল-_ ada বিবাহ না হইলে তিনি otha স্ধীরের বিবাহের চেষ্টা করিতে পারিতেছিলেন না; গোপনে কথা কহিতে হইতেছিল। ভয়ও ছিল, পাছে জানিতে পারিলে aia বাঁকিয়া বসে বা মৃণালিনী কোন কথা বলেন। মৃণালিনীকে পিসীমা বহুদিনের ব্যবহারে বিশেষ রূপ জানিয়া- ছিলেন। সাধারণতঃ তিনি fe শান্ত--কিন্তু যে স্থানে তাহার মতের সহিত অন্তের মতের অনৈক্য হইত, সে স্থানে তিনি নিজ-মত প্রতিষ্ঠা করিবার জন্য যে দৃঢ়তা অবলম্বন করিতেন, তাহ] অসাধারণ। cada বিবাহ-সম্বদ্ধ লইয়াই পিসীমা”র মতের সহিত তাহার মতের কয় বার সংঘর্ষ হইয়াছে এবং প্রতি বারই তিনি পিসীমা”র মত চূর্ণ করিয়া দিয়াছেন।কিন্তু পিসীমা কুমুদার ও তাঁহার গঙ্গার ঘাটের পরিচিতাদিগের নিকট শুনিতে লাগিলেন, স্ধীরের বিবাহের ব্যবস্থা AN Ay করাই কর্তব্য; কেন না, যত দিন যাইবে, তত তাহার আপত্তি ও লজ্জা হইবে। তাহারা বলিতে লাগিলেন, “গুভস্ত Age’ -শান্তবাক্য। আর সেই শান্তবাক্যের প্রমাণ দিতে লাগিলেন, Teta রাবণ প্রবল. প্রতাপশালী



Leave a Comment