প্ৰবন্ধসংগ্রহ [খণ্ড-২] | Prabandhasangraha [Vol. 2]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
লেগেছে। বযষয়ভেদে সে দোল মন প্রকাশ্যে উপভোগ করছে, বিষয়ভেদে সে দোল WHA চেয়েও TH) Ty ভাবে যা-কছু্‌ আয়োজন তাকে চলার পথে LS এ্রাঁগরে নেবার জন্য। কিন্তু অজ্ঞাতে পায়ে লেগেছে ছন্দের দোল। মহাকাঁবর গদা, স্যতরাং ভুলেও কোথাও পদ্যগল্ধী নয়। ভাষাপ্রয়োগের কলাকৌশল রয়েছে STAT | TSS ব্যস্ত হয়েছে এমন গদ্যে যা MSA অসাধ্য। এরকম প্রবন্ধ বাংলা সাঁহত্যে নয়, Meals সাঁহত্যে দুর্লভ; যেমন দুর্লভ মহাকাঁবর আঁবর্ভাব। আর তার চেয়েও দুর্লভ মহাকাঁবর প্রবন্ধরচনায় প্রেরণা? এ রচনা নানা শ্রেণীর প্রবন্ধের এক শ্রেণী নয়। এ Wey Ter বদ্তু। পাগল ছাড়া এর HATTA কথা কোনো লেখক কল্পনা করে AT!আচার্য রামেন্দ্রসূন্দর ছিলেন সেকালের বেসরকাঁর কলেলতের বিজ্ঞানের অধ্যাপক। ছাত্দের পদার্থণবজ্ঞানের ক খ পড়াতেন। সেই প্রাথামক 1বজ্ঞান পড়াতে পরাীক্ষা দেখাবার জন্য যে সামান্য BSA প্রয়োজন তারও বালাই ছল না। সে-সবের জায়গায় ছিল কালো বোর্ড আর সাদা চক। 1বজ্ঞানে এই প্রাইমার বিদ্যালয়ের গ্যর্‌মহাশয় রামেন্দ্রসন্দর ছিলেন সর্বপবজ্ঞানাবদ্যার মহামহোপাধ্যায় পাঁন্ডত। fans মহাপাঁ"্ডত বললে তাঁর পাঁরচয় হয় না। বহু বজ্ঞানের Pray থেকে TAY পর্যন্ত AAS MMA জ্ঞানমাল্ল নয়, সে-সব বজ্ঞানের গাঁত ও প্রকাততে তাঁর wrens ছিল অসাধারণ। «Satay শতাব্দী পর্যন্ত 1বজ্ঞানের পাঁরণাত, এবং সে শতাব্দীর শেষ HS তার AAA সচেনার তথ্য ও তত্ত্বে তাঁর মন ভরে feat সে জ্ঞান ও চিন্তার অল্প fee. পাঁরচয় 1তাঁন 1দয়েছেন তাঁর প্রথম দকের নানা বৈজ্ঞানক প্রবন্ধে। আজ যে-সব বাঙাল 1[বজ্ঞানী বাংলা ভাষায় বজ্ঞান ও নবাঁবজ্ঞানের চমৎকার পাঁরচয় দচ্ছেন রামেন্দ্রসমন্দর তাঁদের sa, | তাঁর সর্ব'জ্ঞানরাঁসক অনসাঁন্ধৎস: মন 1বজ্ঞানেই নজেকে আবদ্ধ রাখতে পারে 1ন। বেদাঁবদ্যা ও 1বিজ্ঞানাভাঁত্তক দর্শন থেকে আরম্ভ ক'রে মহাভারত ও মহাজন-চাঁরত- কথার মধ্য THC বাংলার মেয়োল ছড়া পর্যন্ত দে মনের স্বচ্ছন্দ গাত। ইংরেজ সমালোচক যে মনকে বলেছেন 'বাদশাহী হীরা'। জ্ঞানের আলো পড়লে শতমুখ থেকে কিরণ ঠিকরে আসে। রামেন্দ্রসমন্দরের শেষের দিকের প্রবন্ধগাল তাঁর এই বহুমুখী জ্ঞান ও চিন্তার পাঁরচয়। তাঁর 1বশাল জ্ঞান ছল তাঁর মনের লীলাক্ষেয়, তাকে বহন করতে হত না। তাঁর লেখা প্রবন্ধ তাঁর মনের প্রাঁতচ্ছাৰব। জ্ঞান- বিজ্ঞানের কথা তানি বলেছেন আঁত সহজে; তার পাঁরাঁধর কথা ভাবলে তবে মনে বিস্ময় আসে। তাঁর গভীর চজ্তা পাঠকের মনে চিন্তা আনে fans তার প্রকাশ গম্ভীর নয়। ভাষা অবলীলায় ভাবকে প্রকাশ করছে, কল্তু তার ale লঘু নয়। পদক্ষেপে মহার্ঘ শালশীনতা। গভীর জ্ঞান ও fers প্রকাশের উপযন্ত ভাষা। কিন্তু তার মধ্যে দেখা 1দয়েছে অন্যাঁবল হাঁস। জ্ঞানীর Tae মনের পাঁরচয়।৩ গোঁতম ay আর্য ছিলেন, না, প্রত্যল্তবাসণ আর্ষেতর afer বংশধর, এ তর্ক প্রাচীন। এথননলাঁজর প্রমাণে এর মীমাংসার কথায় প্রমথ চোঁধ্যুরণ লিখেছেন--১১



Leave a Comment