দেশকাল | Desh Kal

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
Bary শিশুহৃতসর্বম্ব পিতাসম্ভান হারা মাছিন্নমস্তা গৃহশ্রেণীআরহৃদয়ের ভিতরে ঝন্ঝনিয়ে ওঠা Psa,যাচ্ছ, যাও কী রেখে দিয়ে গেলেফিরে তাকাবে কি?সলিলকৃষ্ণ ও বিজনকৃষ্ণের সমসাময়িক আর দু'জন উল্লেখযোগ্য কবি হলেন অপরাজিতারায় ও করবী দেববর্মন। অপরাজিতা প্রথমে ছড়া দিয়ে শুরু করলেও শেষ পর্যন্ত কবিতার মধ্যে নিবিষ্ট হয়েছেন। তার প্রথম ছড়াব (ও কবিতার) বই "বাইরে বাউল” (১৯৮৩)। তারপরেও ১৯৮৬ সালে আর একটি মূলত ছড়ার বই “ঝোড়ো হাওয়ার ঝাপটা” বের হয়। ২০০০ সালের প্রারম্ভে তার কবিতার বই “দ্বিতীয় শবীর” বের হয়। এতে ১৯৬১ থেকে ১৯৯৯ সালের মধ্যে লিখিত ৬৭টি কবিতা রয়েছে। এই সংকলনেব কবিতাগুলি পড়লেই দেখা যায় কবি কীভাবে চার দশকের পথ পরিক্রমার সৃষ্টির পূর্ণতায পৌঁছেছেন | ১৯৬২ সালে লেখা 'বত্রিপুবা' শীর্ষক কবিতায় ত্রিপুরার অপরূপ প্রকৃতির প্রতি কবির মুগ্ধতা ও ভালোবাসার পরিচয়টি চমৎকাব ভাবে প্রকাশিত হয়েছে -নীল পাহাড়ের ছায়া পড়ে যেন দূর আকাশের গাযগেরুযা নদীব জলেপ্রাস্তদেশের কাহিনী বুঝি হারায়।কত ইতিহাস ধুয়ে ধুয়ে নেওয়া গোমতী মনুর ঢেউ,বাঁকে বীকে উপকথা,রেখা রং দেখে ভাবী কথাকার কেউ |অপরাজিতা শব্দ, ছন্দ ও উপমা ব্যবহারে যে কতো নিপুণ তা তাব কবিতা অভিনিবেশসহকারে পড়লেই বোঝা যায়। চার দশকের বেশি সময় ধরে কবিতা লিখে যিনি একটি নিজস্ব ভুবন গড়ে তুলেছেন অনায়াস দক্ষতায, তিনি কবি করবী দেববর্মণ | তাঁব কবিতা সহজ সরলভাব ও রোমান্টিকতার আশ্চর্য স্পর্শের জন্য সবশ্রেণীর পাঠকের কাছেই আকর্ষনীয় | এ পর্যন্ত তাঁর পাঁচটি কাব্য- 'লুষ্ঠিত সময় সীতা' (১৯৮৫), 'মেরুদন্ড দাও' (১৯৮৬), 'কবিতা আমার সময় WATT (১৯৮৬), fag স্বগতোক্তি কিছু ব্যক্তিগত সংলাপ' এবং সৃজনে উৎসবে' প্রকাশিত হয়েছে। তার কবিতায় অনুভুতির প্রগাঢ়তা যেমন Ura রূপ লাভ করেছে ঠিক তেমনি আবার স্থানিক জীবন ছবি নিষ্ঠার সঙ্গে উপস্থাপিত হয়েছে। তার 'সময় এসে' BGA কয়েকটি ashe নীচে উদ্ধৃত করে তাঁর রচনা -নৈপুণ্যের পরিচয় দান করা হল *দেশ কাল- ৮



Leave a Comment