বুনিয়াদী শিক্ষাপদ্ধতি | Buniyadi Shikshapaddhati

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
বুনিয়াদী শিক্ষাপদ্ধতি - ৩হচ্ছে সমস্থ দেহ-গঠন। রোগজীর্ণ ব্যাধিদছুষ্ট দেহে মনের বিকাশ ঘটতে পারে না, wey মনের শিক্ষার গোড়াতেই আমরা দেহের বিকাশের কাজ হাতে নিয়ে থাকি। আমাদের এই হতভাগ্য দেশ ছাড়া UES ও use বিদ্তার্থীকে পিটিয়ে cary তৈরি করার হাস্তকর প্রচেষ্টা আর কোথাও হয় নি। স্বাস্থ্যকে শিক্ষার অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ ব'লে সকল, দেশই স্বীকার ক'রে নিয়েছে। আমরা ইংরেজদের সময়ে অনময়ে গালাগালি ক'রে থাকি, কিন্তু তারাও তাদের শিশুদের স্বাস্থ্যের কথ! কতখানি ভেবে থাকে, তা আমাদের জান দরকার। যুদ্ধের ভয়াবহ বিশৃঙ্খলার মধ্যেও. ইংলণেডের বোর্ড অব, এডুকেশন ১৯৪৩ খৃঃ-অঙ্বে পার্লামেন্টে যে আইন পাশ করিয়ে নিয়েছিল, তার এই সম্পর্কিত অংশ একটু দীর্ঘ হ'লেও উদ্ধৃত করার লোভ নংবরণ করতে পারছি না। অনেক আগে থেকেই ইংলণ্ডে বিদ্যার্থীদের স্বাস্থ্য-পরীক্ষ; চিকিৎসা! ও বিদ্যালয়ে ate- সরবরাহের ব্যবস্থা আছে; কিন্তু সেই ব্যবস্থাও' শিক্ষার কর্ণধারদের নিকট rite বলে পরিগণিত হয়নি । এই oy তারা চেয়েছেন ঃ“It is proposed, therefore, to inake it the duty of the Local Education Authorities to provide for the medical inspection of all children and young persons aitending grant-alded schools and to take such steps as may be necessary to ensure that those found to be in need of treatment, other than domiciliary treatment, shall receive it, No charge will be made for medical treatment for any of these childern or young people.”adic, wa সাহায্যপ্রাপ্ত বিস্তালয়গুলিতে যে সব যুবক এবং শিল্ষর| , পড়া্তনা করে, তাদের স্বাস্থ্য-পর্যরেক্ষণের ব্যবস্থা করাকে স্থানীয় শিক্ষা-কর্তৃপক্ষের কর্তব্যের অন্তভুক্তি করার প্রস্তাব করা হচ্ছে



Leave a Comment