নল খাগড়া | Nal Khagra

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
হঠাৎ af Cafe সেখের একটা হাত দু'হাতে চেপে ধরল। দরদী গলায় বলল» যাই আমি-_এ্যা ?ঝড় ওঠা WHA পর যখন স্বর্ণ চলে যাবে-_-অনেক কষ্টে--বিপদ মাথায় নিয়েও তখন রমানাথের নীরবতা] বিরক্তিকর আর বোকামীর লক্ষণ মনে করে ক্ষ্যাপার মতো জড়িয়ে ধরল ওকে স্বর্ণ ৷ata নরম বুকের চাপ রমানাথের বুকে। সে পিঠে হাত বুলিয়ে দিল। বলল, a’স্বর্ণ বলে ওঠে, 'আমি তোমার। তুমি আর কোনো মেয়েকে বিয়ে কোরো না।'“তোমার বিপদ হবে ।‘ate’“ধরে জ্যান্ত আগুনে পুড়িয়ে দেবে“আমিও আগুন ধরিয়ে cata: যাই আমি'। স্বর্ণ ক্ষ্যাপা ঝড়ের মতোই চোখে-মুখে-কপালে চুমো থেতে AACA | তারপর ঝড়ের মধ্যে অন্ধকারে নেমে ছুটে চলল | ওকি সত্যিই ডাকিনী হয়ে গেছে ?বিদ্যুৎ চমকালে স্বর্ণকে দু'-একবার দেখা গেল |বৃষ্টি নামল এবার মুষলধারে।স্বর্ণ নারকোল আর পাতা নিয়ে গিয়ে ভিজে শরীরে উঠোনে এসে দাড়াতেই তার মা সরমা দেবী হাতে বাথারি নাচিয়ে বললেন, “কোথা গেছিলি তুই এতক্ষণ ?“বাইরে গেলুম তো! পেট কনাচ্ছে। আমাশা হয়েছে ।*“হারামজাদী। মিথ্যে কথা! পিঠের ওপর জোরে বীখারির বাড়ি সাটালেন সরমা দেবী । বললেন, মেয়ের ভয় বলে কিছু নেই! ডাকাতে কালী যেন! এই ঝড়জলের আধারে বাগানে গেছে? পেটের জ্বালায় ঝড় উঠলেই নারকেল কুড়োতে ছুটে আসে কত ছৌড়া! মরবি বলে লেগেছিস] এই Cape ata দিনে” অ'ধার রাতে সাপেও কাটে না তোকে ? ধনে-কড়াই- fea-naca স্ব ভিজে গেল !'স্বর্ণ ফুলিয়ে উঠল, “কেন, আমি কি দাদী আছি?” যে চারটে দাসী করে এনেছ তারা শুধু পটের বিবি হয়ে স্তয়ে বসে থাকবে 7’১৬



Leave a Comment