চাঁদ মামার দেশ | Chand Mamar Desh

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
bie মামার দেশলাখ লাখ মাইলের কথা! । এত দূরে যে রয়েছে তার ভিতরে যে সত্যি কি আছে তা খালি চোখে ঠিক ভাবে দেখতে চাওয়া পাগলামি বলেই মনে হয় না কি? তাই অস্পষ্টভাবে যা দেখা যায় তাতেই কেউ মনে করে যে, ওর মধ্যে JVI রয়েছে ; কেউ মনে করে খরগোস। পুরাকালের পণ্ডিতেরাও কিন্তু এমনি ভুল ধারণা করে নিয়েছিলেন। তারাও ঠিক ধরতে পারেন নি, ওগুলো কি? তারা কি বলতেন জান? তারা বলতেন যে এ যে টাদ ও আর কিছু নয়, ওটা] হ'ল মস্ত বড় একট] S| ওতে যে সব জিনিস দেখ! যায় সেগুলে আমাদের পৃথিবীর জিনিসগ্ুলোরই ছায়া মাত্র। আসলে কিন্তু তা নয়। তাঁরাও ভুল করে গেছেন।তোমরা দূরবাক্ষণের নাম শুনেছ নিশ্চয়ই । এতে অনেক দূরের জিনিস ভালভাবে দেখা যায়। মনে হয় যেন সেগুলো খুব কাছে এসে গেছে৷ নবম শতাব্দীতে আবুল হাসান নামে এক মুসলমান বৈজ্ঞানিক এই দূরবীক্ষণ আবিষ্কার করেন। এর দ্বারা অনেক কিছু কাজই তিনি করে গেছেন, সে তোমরা বড় হয়ে জানতে পারবে ; তবে তিনি চাঁদ দেখে এর ভিতরের জিনিসগুলোকে কি বলেছিলেন তা এখনও জানা যায় নি। টাদ সম্বন্ধে প্রথমে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করেন গ্যালিলিও | গ্যালিলিও ছেলেন যোড়শ শতাব্দীর মস্ত বড় এক বৈজ্ঞানিক | কিন্তু তার কথা তার সময়ে লোকে একটুও বিশ্বাস করে নি;৬



Leave a Comment