কাল, তুমি আলোয়া | Kaal, Tumi Aleya

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
পথ ধরে চলেছে গাড়ি। ধীরাপদর ঘুম পাচ্ছে। মাথা টলছে না আর, গা-ও ঘুলোচ্ছে MACHA অবসাদ শুধু। শরীরটা শুধু ঘুম চাইছে। চারুদি কখনো থামছেন একটু, কখনো অনর্গল কথা বলছেন। কখনো এটা-সেটা জিজ্ঞাসা করছেন। ধীরাপদ কিছু শুনছে, কিছু শুনছে না। কখনো হাসছে, কখনো বা Beat করে সাড়া দিচ্ছে। কিন্তু ভাবছে অন্য কথা।...চারুদির pales হয়ে গেল এরই মধ্যে! চৌত্রিশ বললেও বে-মানান লাগত না। ওর ছেলেবেলার কথা মনে হতে চারুদি হেসে উঠেছেন। হাসিরই ব্যাপার।Ram ভোলেনি। তার সেই ছেলেমানুষি, সঞ্চয়ের ওপর অনেকবার অনেক দস্যুবৃত্তি হয়ে গেছে। তবু না। কালে-জলে কতই তো ধুয়ে-মুছে গেল কিন্তু এক-একটা স্মৃতির পরমায়ু বড় অদ্ভুত। চোখ বুজলেই সব যেন ধবা-ছোয়ার মধ্যে। কত হল তার? পরঁয়ত্রিশ। অথচ আর একটা বযেস যেন সেই কবেকার পদ্মাপারের ওধারেই আটকে আছে। এক-এক সময় এমনও মনে হয়, বয়েস কি মানুষের সত্যিই বাড়ে? চারুদির বেড়েছে?পলদ্মাপারের মেয়ে চারুদি।মোটা ছিলেন না এমন। বেতেব মত দোহারা গড়ন। জ্বলজ্বলে ফর্সা, একমাথা লালচে FA! সেই চারুদিকে এক-এক সময় আগুনের ফুলকিব মত মনে হত নবছরের ধীরাপদব। পাশাপাশি লাগালাগি বাড়িতে থাকত । ফাক পেলেই পাঁলযে এসে চারুদির NCHA বসে থাকত। ইচ্ছে করত ওই লাল চুলের মধ্যে নিজের দু হাত চালিয়ে দিতে। ওকে হা করে OLA থাকতে দেখলেই চাকদি খুব হাসতেন।কি দেখিস তুই?তোমাকে |আমাকে ভালো লাগে তোর?খুব।এর দু বছর আগেই সে ঘোষণা কবে বসে আছে বিয়ে যখন Fares হবে একটা, চারুদিকেই বিষে ক্ববে। এটা সাব্যস্ত কবাব পব থেকেই চারুদিব ওপব যেন অধিকারও বেড়ে গিয়েছিল তাব। sa বিযেব কথা জিজ্ঞাসা কবতে গিয়ে চাকদি হেসে ফেলেছিলেন এইজনোযই।শুধু এই নয, আরো আছে। চাকদিব বিযেব রাতে মস্ত একটা লাঠি হাতে বিযের পিঁড়ির বরকে সরোষে তাড়া করেছিল Ham) এত বড় বিশ্াসঘাতকৃতা ববদাস্ত কবতে পারেনি সেদিন। ধরে না ফেললে একটা কাগুই হত বোধ হয।বিয়ের পর চাকদি শশুরবাড়ি চলে গেলেন। এই কলকাতায় শবশুববাড়ি। কিন্তু ধীাবাপদর কাছে কলকাতা তখন কপকথার দেশ। মা আর তাব নিজের দিদিব মুখে সে চারুদির A জীবটিব অনেক প্রশংসা শুনত। শুনে মনে মনে GAS | মস্ত বড়লোক শ্বশুর, মস্ত বাড়ি-গাড়ি- চারুদির বরও বিলেতফেরত ডাক্তার। অমন কপেব জোরেই নাকি অমন ঘর পেয়েছেন চাকদি। ঘব বাড়ি গাড়িব কথা জানে না, চাকদির বর লোকটাকে দৈত্য গোছেব মনে হত ধীরাপদর। যেমন কালো তেমনি থপথপে। রূপকথার দেশ কলকাতা থেকে সেই দৈত্য-বরকে বধ করে চারুদিকে উদ্ধার করে৪ ১১



Leave a Comment