বৃহত্তর তাম্রলিপ্তের ইতিহাস | Brihattara Tamrolipter Itihas

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
অবস্থান ও সীম) ৩( উড়িষয ) দেশে যেয়ে রাজ্য স্থাপন করেছিলেন। সেই অতীত যুগে বঙ্গদেশবাসিগণ তা 'হইলে “কলিঙ্গ” নামে অভিহিত ছিলেন । বর্তমান কালের মেদিনীপুর, Cog ও গঞ্জাম তখন ছিল কলিঙ্গের অন্তর্গত। এখন বিচার্য হচ্ছে এই wife পুরাকালে কোথায় অবস্থিত far! প্রাচ্যবিদ্ঠামহারণব নগেন্দ্রনাথ ay মহাশয় বিশ্বকোষের wae পৃষ্ঠায় লিখেছেন — “তাম্রলিপ্ত প্রদেশশ্চ বণিজশ্চ নিবাস ভূঃ | দ্বাদশযোজনৈযুক্তঃ রূপানদ্যাঃ সমীপ তঃ ॥” অর্থ £-_“বণিকদিগের বাসভূমি তাম্রলিপ্ত প্রদেশ ১২ যোজন বিস্তৃত ও রূপ অর্থাৎ রূপন!রায়ণ নদের নিকট অবস্থিত |” এর দ্বার! স্পষ্টই প্রমাণিত হয় তাম্রলিপ্ত ছিল রূপনারায়ণ নদের তীঁরে। কিন্তু এই বিশাল নদের তীঁরে বললেই ত আর আমাদের সমস্যার সমাধান হয় ali আমাদের নিশ্চিত ভাবে জানতে হবে বর্তমান তমলুকই প্রাচীন তাম্রলিপ্ত কিনা। ভবিষা- পুরাণ-_-ত্র/ম্মখণ্ডে লিখিত আছে-- “তামলিগু-প্রদেশে চ বর্গভীমা বিরাজতে | গোবিম্দপুর-প্রান্তে চ কালী স্মুরধুনী তটে ॥ ৯ ॥” দ্বাবিংশোইধ্যায়ঃ | বর্গভীম৷ দেবী তামলিপ্তে বিরাজ করেন। সে তাম্রলিপ্ত গোবিন্দপুরের শেষ সীমায় স্থবরধনীর তীরে । wel দেবী রূপ- নারায়ণ নদীর ধারে তমলুক ছাড়৷ আর অন্য কোথাও আছে বলে aie জানা যায়নি। অতএব এ বিষয়ে কোন সম্দেহ নাই যে বর্তমানের তমলুকই প্রাচীন তাম্রলিপ্ত। বিখ্যাত প্রত্বতন্ত্ববিদ ডাক্তার রাজেন্দ্রলাল মিত্র ও ata কলেজের তৎকালিন অধ্যক্ষ জে. ডব্‌লিউ, মাক্রিঙ্ডেল সাহেবের প্রাচীন ভারতবর্ষের মানচিত্রে “তাস্রলিণ্ু” বা তমোলুক বলে লেখ আছে। এ ছাড়৷ এচ. এচ.. উইলসন সাহেব, জেনারেল কানিংহাম



Leave a Comment