মৃত্যু-ক্ষুধা [সংস্করণ-৪] | Mrityu-khudha [Ed. 4]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
যৃত্যু-স্ষুধাতার মা একটু অঙ্গুনয়ের স্বরেই বল্লে, “Syl রে, তুই যে কাজে যাচ্ছিস্‌ বড়? এদিকে যে পাচি আমার মরে! দেখনা একটু কাঠুরে পাড়ার দাই মাগীকে । কাল আত্তির ( atfer) থেকে কষ্ট থাচ্ছে, এখনো ত কিছু হ'ল না”প্যাকালে তখন shes ফুটগজ সামনে রেখে থালায় একথালা ag নিয়ে ঝুঁকে প'ড়ে তার তেল-চিটে চুলে বেশ ক'রে বাগিয়ে টেড়ি কাটছিল! আয়নার অভাব সে কিছুদিন থেকে থালার জলেই মিটিয়ে আস্ছে।চার আনা দামের একটি atin সে কিনেও ফেলেছিল একবার কিন্তু একদিন চা খাওয়ার পয়স৷ না থাকাতে সেটা ছু'পয়সায় বিক্রি করে দোকানে Bi CATH এসেছে। এখন যা পায়, তাতে চা'লই জোটে না দছবেলা, তা আয়না কিনবে fF |কিছুদিন থেকে নে রোজই তার রোজের পয়সা! থেকে চার আনা আলাদা করে রাখে, আর মনে করে আজ একটা আয়না কিনবেই। কিন্তু যেই বাড়ীতে এসে বাজার করতে গিয়ে দেখে, ছ'আনায় নকলের উপযোগী চাল”ই হয় না, তখন লুকানো সিকিটাও বের করতে হয় CHIEU থেকে |বয়স তার এই আঠার-উনিশ। কাজেই চেয়ে না পাওয়ার দুঃখটা Sew আজে তার বেশ একটু সময় লাগে! কিন্তু তার আয়নার! জন্য তার পিতৃহীন ছোট ছোট ভাইপো ভাইঝিগুলি sire থাক্বে--এ যখন মনে হয়, তখন তার নিজের অভাব আর অভাবই বোধ হয় না।



Leave a Comment