বিদেশী গল্পগুচ্ছ | Bideshi Galpoguccha

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
জানালো | মেষপালকেরা প্রায়ই তার গো-চর মাঠের মধ্যে চুকিয়ে face তাদের মেষের দল, আর রাতের বেলায় ঘোড়াগুলো! ঢুকে পড়তো ফসলের ক্ষেতে । বার বার পাখোম সেগুলোকে তাড়িয়ে দিয়েই ক্ষান্ত রইলো। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তার ধৈর্ধের বাধ ভেঙে গেলো । জেলা আদালতে সে একটা নালিশ রুজু করে দিলে । সে জানতো, জমির অভাবেই চাষীর! এ কাজ করতো, তার ক্ষতি করবার জন্য নয়। তবু এ অবস্থা সে আর চলতে দিতে পারে না। ওরা যে খেয়ে সব তছনছ করে দিলো ! একটা শিক্ষা মেষপালকদের দিতেই are |আদালতে সে প্রথমে তাদের একজনকে শিক্ষা দিলো। তারপর আরেকজনকে ৷ প্রথমে একজনের জরিমান৷ হলো। তারপর আর একজনের ৷ ফলে সবাই তার উপর চটে গেলো এবং প্রতিবেশীর] এবার ইচ্ছে করেই তার ফসল চুরি করতে আরম্ভ করলো। একদিন রাত্রে একজন তো তার বাগানে ঢুকে দশ- দশটা faces গাছের বাকল আগাগোড়া তুলে fact সেখান দিয়ে যেতে যেতে একদিন এই ব্যাপার দেখে তার মুখ কালে হয়ে গেলো | আরো কাছে গিয়ে দেখলো, বাকলঙগুলে৷ সব ইতস্তত ছড়ানো রয়েছে আর গাছগুলে! সব শিকড়শুদ্ধ, উপড়োনে রয়েছে । ছুগ্কৃতকারীর৷ একটা গাছ শুধু রেখে গেছে; তারও আবার সব ডালপালা কেটে ফেলেছে। বাদবাকি সব গাছ তারা কেটে একেবারে সাফ করে দিয়েছে। পাখোম তো রেগে আগুন! সে মনে মনে ভাবলো, উঃ! যদি জানতে পারতাম কে এ কাজ করেছে, একবার দেখে নিতাম সামনা-সামনি! সে অনেক ভাবলো, লোকটা কে হতে পারে। হ", এ কাজ যদি কেউ করে থাকে তবে সে CAMB | তখুনি সে গেলো CHS 'কাছে। কিন্তু শুধু গালাগালি ছাড়া তার কাছ থেকে আর কিছুই পাওয়াবিদেশী গল্পগুচ্ছ । ১৪



Leave a Comment