উত্তাল আফ্রিকা-দক্ষিণ | Uttal Africa-daxin

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
২ উত্তাল আফ্রিকা-দক্ষিণরাজনৈতিক ইতিহাস সীমারেখা টেনেছে অন্যভাবে । তিনশো বছর ধরে AS Ae, ওলন্দাজ, বৃটিশ, জার্মান, আর বেলজিয়ান সাম্রাজ্যবাদ এই ভূখণ্ডে যে ইতিহাস sai করেছে তা ভূগোলের যুক্তি মানেনি, স্যায়নীতি বা সভ্যতা-সংস্কৃতির যুক্তিও মানেনি।আঙ্গোল! ও মোসাম্বিক ১৯৭৪-৭৫ সাল পর্যন্ত পতুগীজ সাম্রাজ্যের wats ছিল । staan এককালে জার্মান সাম্রাজ্য ছিল, প্রথম মহাযুদ্ধের পর থেকে ১৯৬১ সাল পর্যন্ত ছিল বৃটিশ সাম্রাজ্য, ১৯৬১ সালের ডিসেম্বরে স্বাধীন হল ৷ মালাউয়ি ছিল বৃটিশ সাম্রাজ্যের অন্তর্গত, নাম ছিল নিয়াসাল্যাগু; ১৯৬৪ সালের জুলাই মাসে স্বাধীন হল। জাম্বিয়া ছিল বৃটিশ উত্তর রোডেশিয়া, ১৯৬৪ সালের অক্টোবরে . স্বাধীন হয়ে জাম্বিয়া হল | জেয়ার-এর নাম ছিল বেলজিয়ান কঙ্গো, dave সালের জুন মাসে স্বাধীন হয়ে গৃহযুদ্ধ ও নানা সংঘর্ষের রক্তাক্ত ইতিহাসের শেষে নাম নিল ‘cote’ | এসব দেশগুলোর ইতিহাস অআফ্রিকা-দক্ষিণের ইতিহাসের সঙ্গে গভীরভাবে সম্পর্কিত হলেও এদের নিজস্ব ঘটনাবলী আছে এবং অধ্যায়-বিন্যাস অন্যরকম। এই সব দেশে এখন কৃষ্ণকায় আফ্রিকান সরকার প্রতিষ্ঠিত, এ সব দেশ শ্বেতশাসনমুক্ত। এদের স্বাধীনতার মধ্যে প্রকারভেদ আছে, প্রতাক্ষ পরাধীনতার অবসান হলেও সবকটা দেশ সমান আত্মনির্ভর aq) পরোক্ষ বৈদেশিক সাম্রাজ্যবাদী প্রভাব ও মিয়ন্ত্রণ, অর্থনৈতিক পরনমির্ডরতা কোন কোন দেশে বেশ সুস্পষ্টভাবেই দৃশ্য। AD স্বাধীন দেশ, কিন্তু সবাই এক প্রক্রিয়ায় স্বাধীনতা অর্জন করেনি, এবং সাম্রাজ্যবাদ-বিরোধিত৷ সবার সমান নয়, তেজের তারতম্য আছে | জেয়ার আর জাম্বিয়ার রাজনৈতিক গতির সঙ্গে তানজানিয়া-আঙ্গোলা- মোসাম্বিকের রাজনৈতিক গতির পার্থক্য আছে। তথাপি, এই দেশগুলো! আজকের “আফ্রিকা-দক্ষিণ' থেকে পৃথক |save পর্যন্ত আফ্রিকা-দক্ষিণে অধিপতি ছিল বৃটিশ লরকার ৷ শ্বেত-শাসিত দক্ষিণ wife “বৃটিশ ডমিনিয়ন” ছিল, শ্বেত-শাসিত



Leave a Comment