সাত সমুদ্রে পারে | Sat Samudra Pare

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
আমার অদৃষ্টে যা লিখেছেন, গণক ঠাকুর আর কি করে সেটা খণ্ডাবেন ? এখানেই এখুনি বলে রাখি-_-যখন arid দশ বছর পরে বিলেত হতে I. F. ও চাকরী নিয়ে এই ভগ্নীপতির বাড়ীতেই আসি, তখন সক্লের কি আনন্দ ও গ্ব। আমাকে নিয়ে কি যে করবে-_মাথায় রাখবে না চেয়ারে বসাবে ঠিক পাচ্ছিল না। কি আদর, কত যত্ন, কতই যে খোসামদ | সকলেই প্রায় বললেন-_-আমরা তো ওর ছোটবেলা হতেই জানতাম ছেলেটি বংশ উজ্জ্বল করবে |অবশ্য SATS তখন বেঁচে ছিলেন না! । বেঁচে থাকলে কি বলতেন জানি না। তখন পর্যন্ত তার পরিবারে আমার চেয়ে ভাল চাকরী বা লেখাপড়া কেউ করেনি |বরিশালে কৈশোরতখনকার দিনে ম্যাট্রিককে এনট্রান্স বলা awl আমি খুলনা জেলায় ভগ্মীপতির বাসায় থেকে চার বছর হাইস্কুলে পড়েছিলাম । প্রত্যেক বছরেই ক্লাশে প্রথম হয়ে প্রাইজ পেতাম। তাছাড়া গুড- Pals, এ্যাটেনডেন্স, ড্রিল ইত্যাদির জন্যও আলাদ৷ প্রাইজ পেয়েছি। কিন্তু ভর্মীপতি সব সময়েই বলতেন-_এই গ্রামের ভুতটা এসে আমার ছেলেদের নষ্ট করল।চার বছর পরে এই সহরেই আমার ভর্মীপতি রিটায়ার করে ছু মাসের মধ্যেই সৌরেন্দ্রমোহন ঠাকুরের এস্টেটের ম্যামেজার হয়ে বরিশালে পোস্টেড হলেন। সকলেই মহাখুশী-_রিটারার করে চাকরী নিয়ে নিজের দেশ বরিশাল জেলায় ফিরে যাচ্ছেন, তার ওপর ওদের আদি বাড়ীও ওই জেলার Cen গ্রামে। কাজেই আনন্দের ও উৎসাহের আর সীমা AZ| তবে নূতন জায়গায় থাকার কি বন্দোবস্ত আছে সেটা ভাল করে না জানায় ভগ্মীপতি শুধু প্রথমে একজন ঠাকুর চাকর ও আমাকে সঙ্গে নিলেন। সকলে ভেবে চিন্তে ব্যবস্থা ক্রলেন-_ সব ঠিক-ঠাক হলে অতবড় একটা বিরাট পরিবার সেখানে4



Leave a Comment