উপাসনা | Upasana

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
আর্য্যদেবগণ ১১HY কর্মফলদাত৷ (A ১১২২১); রুদ্ব ঈশান, সমস্ত ভুবনের অধিপতি ও ভর্তা (ঝঃ ২।৫৩৯ ) | . “একো হিরুদ্রে। ন দ্বিতীয়ায়তস্কুঃ”Oriana এই বাক্যে যেরূপ রুদ্রকে এক অদ্বিতীয় বলা হইয়াছে সেইরূপ a সংহিতাতেও আমরা রুদ্বকে অদ্বিতীয় ব্রন্মম্বরপে দেখিতে পাই। ACMA ১1১১৪/১০ মন্ত্রে রুদ্রকে CHE, পুরুষত্ন, FARA প্রভৃতি শব্দে সম্বোধন করায়, তাহার কার্য্যে যে সকলেই রোদন পরায়ণ হন তাহা আমর! বুঝিতে পারি। সেই জন্য ১/১১৪/৮ মন্ত্রে আমর! দেখি খবি কাতরস্বরে প্রার্থনা করিতেছেন “মা নস্তোকে তনয়ে মান wry মা নো গোষু মা নো অশ্বেষু fates! sata মা নো রুদ্র ভামিনোইবধীর্হবিগ্মন্তঃ ania ত্বা হবামহে ” এবং প্রকারে মহান, রুদ্বের উত্তর ও দক্ষিণাদি মুখ পরিকল্পিত হয়। মেরু সহি হত প্রদেশে সুদীর্ঘ শীতের ৬ মাসের রাত্রে এক বৈদ্যুতিক বিস্তৃত প্রভা পরিদৃষ্ট হয়। উহাকে aay প্রভা বলে।ইংরাজীতে এই প্রভা Aurora Borealis নামে অভিহিত । এই প্রভার স্থায়িত্বকালে শীত ও তুষারাদি জন্য মেরু সন্নিহিত প্রদেশের লোকেরা বড় দুঃখের সহিত Sey যাপন করে। এজন্য প্রার্থনা করে “রুদ্র যত্তে দক্ষিণং মুখং তেন মাং পাহি নিত্যং*। স্থুর্য্যোদয় এবং স্থ্য/দর্শনের জন্য খযিগণের বু স্তুতি খগেদের ১৯৪৩, ৯1৪1২-৬ মন্ত্রে দেখিতে পাওয়া যায়। AMMA ১/৪৩/২ WH রুদ্রকে ওষধদাতা বলা হইয়াছে।



Leave a Comment