নীড়ের পাখিরা | Nirer Pakhira

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
রাঙ্গা AAT ওকে দেখেই বলেন. আম আটা Fala, Ola ক তরকাঁর হবে কেটে ফেল | সত্তর কি আজও 1ফরতে cata হবে !রাঙ্গা MATA কথায় ঘাড় নেড়েই সায় দেয় মানসী SiS আর salt তো রাত করেই ফেরে । শ্যামল উঠে বোধহয় বকুানির ভয়েই বোঁর'য় গেছে আবার | রান্না করতে করতে রাত alas আসে । রাঙ্গা মাসীমা কিছ সাহায্য করে উপরে চলে গেছেন । ওরা কেউই ফেরে নন । রাল্লের সব কাজ গ্যাঁছয়ে প্রজমোহনবাব্‌র AAA ওঘরে দয়ে আসে মানসী | তারপর রাঙ্গা মাসীমাকে বলে অবসন্ন দেহটাকে কোনও রকমে টেনে নিয়ে TACHA ঘরে এসে বসে |বিছানায় বসতেই চোখ fact পড়ে cota রাখা ওর আর সুব্রতর ছাঁবটার ace । 1বয়ের পরই *৪:বলন্ডওতে ঁগয়ে Drala! ফটোটার ওপর LTA একটা পাতলা আবরণ পড়েছে । অথচ প্রাতাঁদনই তো সকালে উঠে ফটোটা মুছে রাখে মানসী । আজই বোধহয় ভুল হয়ে গেছে |টোবল থেকে ফটোটা fact আস্তে আস্তে হাত artes দেয় মানসী । দ'চোখের পাতাও CHT যেন আপনা থেকেই ভার হয়ে উঠেছে । চোখের জল মে আবার ফটোটা ঠিক করে Tyee lace সাঁজয়ে রাখে । তারপর ARTA GG হয়ে শুয়ে অনেকাঁদন পরে ছোট মেয়ের মত কাঁদতে থাকে মানসী |আজ MAMA | আঁফনের তাড়া নেই । তবুও AA সকাল সকাল TA থেকে উঠেছে মানসী । কাল রাত প্রায় সাড়ে দশটায় এসেছে স্যত্ত । Sato অনাঁদ এমন ক শ্যামল HAS খেয়ে MT পড়োছল ৷ স্যরতর সঙ্গে অনেকটা ইচ্ছে করেই কাল একটা কথাও বলে fa মানসী । ALIS আঁবাঁশ্য aay শ্যুয়ে কয়েকবার TMs faa, বলার চেষ্টা করেছে। Tare মানসীর সেই পাশ ফরে কাঠ হয়ে LAT থাকা শরীর থেকে কোনও সাড়াই আসে নি । কছক্ষণ মান ভাঙ্গাবার COC! করে শেষে স্মুত্রতও ঘ্যাঁময়ে পড়েছে |ASCH চায়ের আসরে রাঙ্গা MAM সত্রতকে AH বেশ কড়া AAR বললেন, তোর এই এত পাঁরশ্রমের দরকারটা TH বাপ: । AAA এত বড় বাড়তে বউমা একলা থাকে : আঁফস ছাঁটর পর আর কাজ না করে সোজা বাড়িতে ?ফরতে পাাঁরস AT |Has রাঙ্গা মাসীমার দকে তাঁকয়ে হেসে Tea, বলতে যাওয়ার আগেই 1তানই আবার বলেন, আম বলাঁছ সব, তুই এসব কাজ ছেড়ে দে । তোদের চার ভাইয়ের যা রোজগার ভালই তো চলে যায় আমাদের । আর টাকায় দরকার কি 1মার কথা শেষ হতেই GMS বলে ওঠে, তবেই হয়েছে I! BAA আর সব কথা বলো AMA, শুধু ওই পয়সা রোজগারের পথ BRYA কথা বলো না। তাছাড়া কে জানে হয়ত এ চাকাঁরটা ছেড়ে শেষে ফলেদা ওই পার্ট GAAS ফুলটাইম করে নেবে ৷১২



Leave a Comment