আলো আছে | Alo Ache

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
তৈরি হয়ে যাচ্ছে। কী আর করা যাবে। এ বোধহয় যুগেরই নিয়ম। গালে সাবান শুকিয়ে কড়কড়ে হয়ে গিয়েছিল। ব্রাশে সাবান লাগিয়ে আবার গালে ঘষল শৈবাল। আজ তো তার বিশেষভাবে, সতর্কতা নিয়ে দাড়ি কামানো প্রয়োজন। আজ সে সুধার কাছে যাবে। গালে দাড়ির বিন্দুমাত্র চিহ্ন সুধার একেবারেই পছন্দ নয়। অবশ্য গৌফ সে পছন্দ করে। শৈবাল একবার ভেবেছিল গৌফ একেবারে কামিয়ে ফেলবে। সেই কথা শুনে সুধার সে কী রাগ! সে বলেই ফেলেছিল শৈবালকে--গৌফ যদি কামাতে চাও তা হলে আমার কাছে আসবে না। পুরুষেরা বৃহন্নলা সাজলে আমার যাচ্ছেতাই লাগে। পুরুষরা মেয়েদের মতন কেন হবে?উত্তরে শৈবাল কী বলেছিল সেটা সেই মুহূর্তে মনে পড়েছিল। মনে মনে সে হেসেছিল এক চোট। শৈবাল গোবেচারা মুখ করে বলেছিল-_পুরুষ কি শুধু গৌফেই প্রমাণ হয় ? আর' কিছুতে প্রমাণ হয় না? আর কিছু পাও না বুঝি আমার কাছ থেকে।ইঙ্গিতটা বুঝতে পেরে সুধার ফর্সা মুখ গোলাপি আভা নিয়েছিল। সে অস্ফুটে বলেছিল - যাহ! সবসময় শুধু অসভ্যতা না?.....সুধার বয়স কম নয়। চল্লিশোত্তী্ণ নারী সে। তা হলেও সে আজও কুড়ি বাইশ বছরের যুবতীর থেকেও হয়তো আকর্ষণীয়া। আজ সুধার মুখে লজ্জাসহ-_- যাহ! সবসময় শুধু অসভ্যতা না?--এই কথাগুলো শোনার জন্যে শৈবাল কতরকম সুযোগ (যে খোঁজে।নিজের ঘরে ঢুকে বিছানায় উপুড় হয়ে শুয়ে নতুন কেনা তিনটি সংবাদপত্রই খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখেছিল তমাল। সেই সংবাদপত্রগুলোতেও ছাপা হয়েছিল AAD | বারবার পড়েছিল তমাল। শুধু সেই খবরটাই। তারা নিয়মিত যে দৈনিক রাখে সেটাতেই বেশ বিশদভাবে ছাপা হয়েছিল খবরটা। সেটা এরকম--একুশ বছরের যুবকের আত্মহনন“ইঞ্জিনিয়ারিং-এ সদ্য ডিপ্লোমা পাওয়া যুবক সুহাস বন্দ্যোপাধ্যায় বরাবরই ছিলেন একটু বেশিরকম আবেগপ্রবণ যে কোনও দুর্নীতির ঘটনায় তার তীত্র প্রতিঞ্রিয়া দেখে রাতিনতো বিশ্মিত হতেন তার বন্ধরা। কয়েকদিন আগে সুহাসদের বাড়ির বিকল টেলিফোন ঠিক করতে গিয়ে লাইনম্যান যে পঞ্চাশ টাকা ঘুষ চেয়েছিলেন তাতে সুহাস সম্ভবত এক প্রবল মানসিক ধাক্কা পেয়েছিলেন। বস্তুত সমাজের সর্বস্তরে ব্যাপক দুর্নীতি এবং অবক্ষয় এই যুবককে ব্যথিত করত AV | তার বন্ধুরা অবশ্য সুহাসকে একটু অস্বাভাবিক বলেই ভাবতেন। কেউ কেউ সুহাসকে নিয়ে ঠাট্টা তামাশা PACHA | GAA কোনও কোনও বন্ধু বলতেন যা দিনকাল পড়েছে, দুর্নীতি কিংবা অবক্ষয়ের বিরুদ্ধে একা একা লড়াই করা সম্ভব নয়। বরাবর পড়াশোনায় মেধাবী ছাত্র20



Leave a Comment