প্রাচ্যের জাগরণ | Prachyer Jagaran

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
JoAST নহে । WHS racwoy ব্যথায় অধিক দিন স্থায়৷ হইবে না: কিন্তু ভাবের Tho যদি অমর হয়, তবে মৃত্যুর ক্যাথাত মাথায় বহিয়াও এই সত্যই FS ই |AIM এই পথই শ্রেয়ঃ বোধ করি। প্রাচ্যের AAT BE UZ বটিতেছে, তাহা এই সত্যের মূল HP করার আয়োজন ছাড়। wear আমর! দেখি aii হিংসাবৃত্তি জাগাইয়৷ যে aa অধিকার tal হয়, হিংসার প্রতিথাতে সে অধিকার pre হওয়া MASA নহে। এক পাপের প্রায়শ্চিত্ত বিধান করিতে গিয়। অন্য পাপের আশ্রয় Fae প্রতিঞ্য়া-নুক্ত হয় ন৷। ভারতের অহিৎসামন্ত্রের ঘোষণ। এই দুদ্দিনে তাই উপেক্ষার Fe নহে। বহিজিগতে নৈসগিক লক্ষণ Asa দেখিয়৷ এই নীতির বিরুদ্ধ-বাদ প্রচার অপ্রত্যাশিত নয়; fea প্রাচ্যের সাধন! বীধ্যহীন নহে, ইহার পশ্চাতে একটা অদৃশ্য atl «fe আছে, বাহ পরিণামে অতি বড় বিষধর সর্পকেও যেমন সম্মোহন-মন্তরে শব্ধ eal বায়, তেমনি জগতের Aedes fate করিবে। ভারতের সাধনা প্রাচ্যেরই ঘনীভূত কল্যাণপ্রতিমা--ভারত তাই প্রাচ্যের সত্যই কোহিনর-মণি। যুগপ্রভাব হইতে আত্মবেৈশিষ্ট্য রক্ষার শ্রেষ্ঠ নীতে ভারতই জাবন fen আবিষ্কার করিয়: প্রাচাকে নিখাইবে । তাই প্রাচ্যের অগ্রগতির মূলে ভারতের এই দৃষ্টি ও Req er যে ফথাকালেই আত্মপ্রকাশ করিবে, দে ANS আমাদের সংশয়মাত্র নাই ।"প্রাচ্যের জাগরণে”--তক্ষুণ গ্রন্থকার এশিয়ার পাতিত জাতির মুক্তি-চিত্র আক্িয়াছেন। চিত্রগুলি নূতন দৃষ্টি fra



Leave a Comment