ভারতকন্যা নিবেদিতা | Bharat Kanya Nibedita

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
একদিন ডেকে নিভে পারে।' বিচিত্র এই ঘটন!! সেদিন এটা কোন ভবিতব্য বলে মনে হয়নি। না হওয়াই তো স্বাভাবিক । তবু আশ্চর্য কৌতূহলে মার্গারেট উদীপ্ত হয়ে উঠলো। ভারতব অজানা দেশ। ভারতবর্ষের নাম সে শোনে নি! দূর বিদেশে যাবার Slater মনে দান! বাধলে কিন! বোবা যায়নি কিন্ত বাবাকে ভার কৌতুহল মেটাতে হোল | sty পৃথিবীর মানচিত্র খুলে ধরলেন। cage মার্গারেট কেবল রেখায় আর রঙে ভারতবর্ষুকে চিনে রাখলো।এর পরেই এল সেই দুদিন, পীড়িত সামূয়েলকে পৃথিবী ছেড়ে চলে যেতে হল। মেয়ে তাকে কাছ ছাড়া করতে না চাইলেও aries আহ্বান কেই বা এড়িয়ে যেতে পারে? ঢাগারেটকে সঠিক চিনেছিলেন স্বামুয়েল। তার দিনের দীর্ঘ সময়ের সঙ্গী এই মেয়েটি । দশ বদরের কিশোরী। fas কাজে আমার আচরণে দশ বদের কিশোরীর মত লনে হয় ন|। HD সকলের থেকে আলাদা। মালাদা তার স্বভাব মার ধর্ম। পিতা ঠিক চিনেছিলেন। তাই মৃত্যুশয্যায় স্ত্রী নেরীকে ডেকে বলে গেলেন--.-মা্গারেটকে কোনদিন aa দিও al জানি ও অনেক বড় হবে। বড় হওয়ার জন্যই ও এসেছে।' পিতার মুখে মেদিন আশীবাদের মত এই কথাগুলো চমক দিয়ে গেল। মৃত্যুপথ যাত্রী এই ধর্মপ্রাণ স্বদেশ হিতযী মনাযীর মাকাক্ষ] মামর| ভারতবর্যের মানে চিরদিন সশ্বরণে রাখবে। কেননা, তার এই আকাঙ্ক্ষা আমরা সত্যি চতে দেখেছি।মার্গারেট এবার নতুন জগতে প্রবেশ করলো।ওদের অভিভাবক হলেন দাদু স্যামিষ্টন। হ্যামিন্টন ওদের মাছাগহ। এখন দুই বোন বড় হয়েছে। হালিফ্যাক্সেএর বোর্ডিং স্কুলে ওদের ভর্তি করে দেওয়া হোল। ওদের আর এক ছোট4



Leave a Comment