রঙ রুট | Wrong Route

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
রঙরুট ৫বিয়ের পালা চুকে গেছে-_অমলেরও খাওয়া হয়ে গেছে। অমল ভাবছিল, এইবার গেলেই তো হয়। কিন্তু বাসরঘরে সমীরণের সঙ্গে একবার দেখা না করলে বোধহয় খারাপ দেখাবে। বাসর ঘরের সামনে যেতেই সমীরণ Be CATH অমলকে ডাকলে, বোধহয় তার স্মার্টনেসের পরিচয় দিতে । অমল তার পাশে গিয়ে বসতেই সমীরণ রীতিমত কেতাছুরস্তভাবে নববধূকে ইন্ট্রোডিউস্‌ ক'রে দিলে । নববধূহাত তুলে ayes করলে-_ছুহাত ভরা একরাশ গহনা বনঝন ক'রে উঠল। অমলের মনে পড়ল-_'ব্ল্যাক-মার্কেটের পয়সা কিনা, তাই আর টাকার জন্যে কোন ছুখ-দরদ নেই |অমলও প্রতিনমন্বার করণে, কিন্তু কি বলবে ভেবে পেলে না, কিছু একটা বলার উদ্যোগ ক'রে আবার ঢোক গিলে নিলে । সমীরণ আরও খানিকটা অমলের পাশ CIT বসে তার কানে কানে বললে, “আমার মনে হয়, বিজ্‌.নেস্‌ তুই ঠিক ম্যানেজ করতে পারবি না অমূল। তার চেয়ে এক কাজ কর না -কেন-__মিলটারীতে ঢুকে পড়, বলা যায় না ভালো একটা oA পেয়ে যেতেও পারিস-_”অমল উঠে দাড়িয়ে বললে, “দেখা যাক, কতদূর কি করতে পারি। এখন চলি তাহলে-_রাত তো অনেক হলো ।” নববধূর কাছে বিদায় নিতে গিয়ে cael, মেয়েটি তারই মুখের দিকে চেয়ে আছে। হাত তুলে নমস্কার ক'রে অমল বেরিয়ে পড়ল |কেন যেন অমল একটু জোরেই হেঁটে চলেছে। স্বোয়ারের মধ্যে এসে গমকে দাড়িয়ে পড়ল-_সমস্ত মাঠটার ওপর বারেক চোখ বুলিয়ে নিয়ে আবার মন্থর গতিতে HTS থাকে । কাজলটানা নববধূর চোখ ছুটো যেন তার চোখের সামনে ভেসে বেড়াচ্ছে। আচ্ছা, অমন ক'রে তার মুখের পানে সে চেয়ে ছিল CFA | .কিন্তু সমীরণই-বা তাকে মিলিটারীতে ঢোকার কথা বললে কেন ! সে TT বলতে চার, তার অর্থ তো এই যুদ্ধের মধ্যে জড়িয়ে পড়া ছাড়া আর কোন উপায় নেই। কিন্তু কেন, কেন উপায় নেই ! এই যুদ্ধের সঙ্গে তার সম্পর্ক কোথায় ? হচ্ছে ব্রিটিশের সঙ্গে জার্মানি আর জাপানের যুদ্ধ--তার মধ্যে পরাধীন ভারত- বাসীর কি স্বার্থ থাকতে পারে !কিন্তু সমীরণই তো বললে, তারাও মিলিটারী কনট্রাক্ট ধরতে we করেছে। সমীরণের THT যুদ্ধের দৌলতে ব্ল্যাক-মার্কেটে এত পয়সা করেছে যে টাকার ওপর তার কোন দুখ-দরদ নেই । সমীরণের বাবা তো এমন একজন 'লোক্কের



Leave a Comment