কথা সরিৎগরের গল্প | Katha Saritsagarer Galpo

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
১২ কথা সরিৎমসাগর্ের গল্পক্রমে তারা মন্দিরের কাছাকাছি এসে গেলেন। মন্দিরের চারিদিকে অনেকগুলি গাছ- রাত্রে বেশ অন্ধকার। আশে- পাশে কোন লোকজনের চলাফেরা নেই। এখানে রাত্রে আসতে গেলেই অনেকেরই গা BALA করে। পুত্রকের কিন্তু একটুও ভয় করল না, তিনি নিষ্পাপ। ক্রমেই এগিয়ে চললেন! বাপ-কাকারা বললেন, তুমিই বাপু ater দেবীদর্শন করে এসো, দেশের রাজা তুমি, আমরা পরে আসহি।পুত্রক মন্দিরে প্রবেশ করলেন। তারপর যেই দেবীকে প্রণাম করতে যাচ্ছেন অমনি মন্দিরের একপাশ থেকে কয়েকজন দস্য্য এসে তাঁকে হত্যা করতে উদ্যত হ'ল। দেখে অবাক হয়ে গেলেন তিনি, কিন্তু একটুও ঘাবড়ালেন ail স্থিরকে তাদের জিজ্ঞাসা করলেন, তোমরা কারা, আমাকে হত্যা করতেই বা চাইছ কেন তোমরা 1wy উত্তর দিল, আমরা wy, তোমার বাপ-কাকারা আনাদের টাকা দিয়েছেন তোমাকে মারবার জন্যে ।পুত্রক বললেন, অর্থের জন্যই যদি তোমরা এ কাজ করতে এসে থাক, তবে আমি তোমাদের প্রচুর অর্থ দিচ্ছি, তোমরা আমায় ছেড়ে দাও |রাজী হয়ে গেল MA: পুত্রক farsa গা থেকে সমস্ত রত্নালঙ্কার খুলে তাদের দান করলেন। Wasa খুশি হয়ে মন্দির ছেড়ে BHAI পথে পুত্রকের বাপ-কাকারা যেখানে লুকিয়ে ছিলেন সে পথ দিয়ে যাবার সময় তারা জিজ্ঞাসা করলেন, কাজ হাসিল 1on, হাদিল। তাকে শেষ করে এসেছি আমরা |শুনে খুব খুশি পুর়কের বাপ-কাকারা। বিদ্ধ্যবাসিনীর মন্দিরে আর Stal গেলেন না, মনের আনন্দে নানা জল্পনা- VHA করতে করতে রাঙ্গধানীর দিকে রওনা হলেন |



Leave a Comment