শেষ অধ্যায় | Shesh Adhyay

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
--আচ্ছা, তাই হবে। বলে ছ'কোটা হাত থেকে নামিয়ে রেখে অজিত উঠে দাড়াল |yas বললে--ব্যাটাছেলে যে ভগবান তোমায় কেন করেছিলেন জানি নে। ছি fe, কোনও কাজের নও |অজিত সেদিকে কর্ণপাত না করে বাড়ি থেকে বের হলো |চীৎকার করে ইন্দুমতী তাকে একবার শুনিয়ে দিলে--এর একটা প্রতিকার যদি না করতে পার তো, তুমি যেন আর বাড়ি ঢুকো না।রোজ সকালে একবার সুষমার বাড়ি না গেলে অজিতের চলে না |সেদিনও নিজের কাজ সেরে সুষমার বাড়ির দিকেই সে চলেছিল। পথে ABA বাড়ি ৷HE তখন বাড়ি ফিরে সব কথাই শুনেছে। দরজার কাছে অত্যন্ত বিমর্যমুখে দাড়িয়ে ভাবছিল, কি তার sal উচিত৷এমন সময় দূরে অজিতকে আসতে দেখে মুখখানা তার সহস৷ বিবর্ণ হয়ে গেল ।অজিতও তাকে দেখতে পেয়েছে, তা না হলে দে পালাতে পারত, কিন্তু এখন আর পালাবার উপায় নেই। সাহসে ভর করে AZ সেখানে দাড়িয়ে রইল । ভাবল, AAS সে, তার হাতে পায়ে ধরে ক্ষমা ভিক্ষা করবে এবং তাঁর অবস্থাটা অজিতকে বুঝিয়ে বললে হয়তো সে তা বুঝবেও |অজিত কাছে আসতেই শঙ্তু তাকে কি যেন বলতে গেল, কিন্ত ভয়ে লজ্জায় গলাটা তখন তার শুকিয়ে কাঠ হয়ে গেছে৷মুখ দিয়ে তার কোনও কথাই সহজে বের হলো না। একট) ঢোক গিলে, চোখ-মুখের ইশারা করে মাথাটা নেড়ে ATA শোনো !শেষ অধ্যায় ১১



Leave a Comment