পাতালপুরী অভিযান [সংস্করণ-৩] | Patalpuri Abhijan [Ed. 3]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
কথা। অন্য কেউ আপনার সঙ্গে নাখাকলেও আমি আছি.। আমার বোট আছে। কবে রওনা হবেন বলুন? এ Bard আমাকে খুঁজে দেখতে হবেই । দেখতে হবে কি আছে ওর মধ্যে I’গুরুজী বললেন, “সাবাস ভাই। এমন লোকই আমি চাই বলে আর একবার আমাদের সবার মুখের দিকে তাকালেন।লোপেস বলল, “খুড়ো মশাই, ডুবুরীর কাজ না জেনেও আমরা ডুবো সোনা! তুলতে সাগরে গিয়েছিলাম। সোনাও তুলেছি। কারণ রয় সাহেব আমাদের সঙ্গে ছিলেন। এখানেও গুরুজী সঙ্গে আছেন, বই পড়ে তিনি কেভ এক্সপ্লোরেশনের সব টেকনিকই শিখেছেন। তা এখন কাজে লাগাতে চান। ভেবে দেখুন খুড়ো-মশাই, সে কাজ এদেশে আমরা ছাড়া আর কে করতে ACHP CHG না। তবে তো না বলার কোনে! উপায়ই নেই আমাদের। রামায়ণ আমি পড়িনি, জানিনা কি লেখা ative তাতে। তবে SATA লোক সাগরতলে এমন একটা অদ্ভুত জিনিস দেখে এসেছে, যার কথা আমরা মিথ্যে বলে এড়িয়ে যেতে পারিনা। তাহলে সব মিলিয়ে কি ছড়াচ্ছে ?”ডাক্তার কাইকোয়াড় এতক্ষণ চুপ করে বসে কথা শুনছিলেন | এবার বললেন, গুরুজী, বই পড়া জ্ঞান আপনারই এ বিষয়ে সব থেকে বেশি। কি কি জিনিসপত্র লাগবে তার wr করুন। টাকার হিসেব করুন । একটা দিন স্থির করুন যাত্রার ।”মহা উৎসাহে গুরুজী বললেন, “কিন্তু এ্যাফোল্সো সাহেব তো এখনও হ্যা বললেন না। শুনেছি, তিনিই আপনাদের দলপতি ॥এ্যাফোল্সে৷ সাহেব হেসে বললেন, “দলের সবার মতই দলপতির ql তবে এ বিষয়ে মিস্টার রয়ের মতামত এখনও আমরা জানতে পারিনি 1’আমি বললাম, “রামায়ণ মন দিয়ে পড়েছি। গুরুজীর কথায়১০



Leave a Comment