স্বাধীনতা সংগ্রাম থেকে সমাজতান্ত্রিক আন্দোলন | Swadhinata Sangram Theke Samajtantrik Andolan

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
রামমোহন, মেকলে, ডিরোজিও ও ইংরেজী শিক্ষাচিরকালই এই ভারত নানা জাতি ও নানা সংস্কৃতির মিলনকেন্দ। ব্রিটিশদের আসবার আগে ভারতে পশ্চিম এশিয়ার এঁশ্লামিক সংস্কৃতি ও প্রাচ্য সংস্কৃতি সম্মিলিত ও WARS হচ্ছিল Ha পশ্চিম থেকে ব্রিটিশদের আগমনে ভারতের সমাজ ও রাজনৈতিক জীবন প্রবলভাবে প্রভাবিত হল।পাশ্চাত্য সংস্কৃতির প্রভাব ভারতের অন্তনিহিত উদারনৈতিক চেতনাকে প্রস্বলিত করেছিল। ভারতীয় উদারনীতিবাদের' প্রথম প্রদীপ SHAS করেন রাজা রামমোহন রায়। ১৮২০ Berna স্পেনের মানুষ যখন প্রথম সংবিধানের অধিকারী হল সেই উপলক্ষে রামমোহন কলকাতায় এক ভোজসভার আয়োজন করেন। ইউরোপমযান্লী রামমোহন পথে এক বন্দরে ফরাসী জাহাজে বিপ্লবী পতাকা উড়তে দেখে সাম্য twat স্বাধীনতার প্রচারক ফরাসী জাতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য এ জাহাজে যাওয়ার বিশেষ ইচ্ছা প্রকাশ করেন।কিছু এঁতিহাসিক বলেছেন যে পাশ্চাত্যের ছোয়াচ ভারতকে আধুনিক রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গী দিয়েছে এবং পাশ্চাত্যের বিদ্রোহী সাহিত্য ভারতাীয়- দের রাজনৈতিক মুক্তির আদর্শে অনুপ্রাণিত করেছে। একথা সত্য যে মিল, ব্রাইট ও গ্্যাডস্টোনের সংসদীয় চিন্তাধারা গোড়ার দিকে ভারতীয় রাজ- নীতিবিদ্দের প্রভাবিত করেছিল। এটাও অবিসংবাদিত সত্য যে ব্রিটিশ প্রভাবের বিরুদ্ধে সংগ্রামের ভিড্ডিতেই ভারতীয় জাতীয়তাবাদ গড়ে ওঠে । যা হোক, ব্রিটিশ শাসনকালে পার্চাতোর প্রভাব ভারতের উপর বিশেষভাবে পড়ে এবং ব্রিটিশ শাসনের অবসান হলেও সে প্রভাব সম্পূর্ণ মুছে যায় নি।স্বাধীনতা অর্জনের এক বছরের কিছু পরে ১৯৪৯ থ্যীষ্টাব্দের ১৬ই মে গণপরিষদে এক ইংরেজী ভাষণে জওহরলাল নেহরু বলেন, “এই WT জানে যে গত শতাব্দীতে এবং তারও আগে Sener সঙ্গে এই দেশের অবশ্যস্তাবী অনেক রকমের সংযোগ গড়ে Troe আর আমরা সারা জীবন ধরে ব্রিটিশ শাসনের অবসান ঘটানোর জন্য সংগ্রাম করে এসেছি। এই সব সম্পর্কের মধ্যে অনেকগুলি খারাপ দিক ছিল, কিছু হয়তো ভাল দিকও ছিল এবং এমন কিছু ছিল যা ভালয়-মন্দয় মেশানো এবং যা এখনও আমাদের মধ্যে রয়েছে। এই মহতী সভায় এই যে ইংরেজী ভাষায় আমি কথা বলছি এই-ই প্রমাণ করে যে এ-সব সম্পর্কের আমি এক নির্ভেজাল দৃষ্টান্ত । সন্দেহ নেই যে ব্যবহারিক ক্ষেত্রে আমরা এঁ ভাষার পরিবতন ঘটাতে চলেছি এবং SAS আমি ও যারা এখানে ASHSW অংশ গ্রহণ করবেন তাঁদের মধ্যে বেশির ভাগ সদস্যই এর পরিবর্তন-সাধনে সচেষ্ট হবেন । এই সভা পরিচালনার জন্য ব্রিটিশ সংবিধানের ছাচে তৈরি কিছু নিয়মকানুন আমরা মেনে নিয়েছি। ইদানীন্তন কালে যে সব সংবিধানের ধারা প্রচলিত তার অধিকাংশই ব্রিটিশের টতৃতরি। তার



Leave a Comment