অর্চ্চনা [বর্ষ-৯] | Archana [Yr. 9]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
নাহিত্যে মৌলিকতা।বাঙ্গালার মাহিতা-বাজারে “মৌলিকত!' কথাটার এখন বড় বেশী রকম আমদানী দেখা যায়। এখনকার অধিকাংশ সমালোচকই সমালোচনা করিতে বসিলে ও কথাটার ব্যবহার না করিয়| প্রায়ই থাকিতে পারেন all Bey, ও বাক্য-ব্যবহারের আতিশয্য দেখিয়া Veta বিরুদ্ধে মামর| কিছু বলিতে চাহি না। আমাদের বক্তব্য, কথাটার উচিত-মত ব্যবহার লইয়া । “মৌলিকতা' কথার প্রকৃতিগত অর্থ pit পড়িয়৷ যাহাতে উহা দশ জনের অর্থহীন অভানস্ত- আবৃত্তিমাত্র হইয়া না দীড়ায়, সেদিকে সকপের একটু দৃষ্টি রাখা কর্তব্য। কিন্তু হুঃখের কথা বণিব কি, অবস্থা প্রায় তাহাই হইয়া! দাড়াইয়াছে। অধিকাংশ ae ব্রী শব্দটির স্বূপ্রয়োগ হয় না। প্রায় Boia অপ-ব্যবহারই হইয়া থাকে ।এইরূপ হইবার সাধারণতঃ ছুইটা কারণ দেখিতে পাওয়া যায়। প্রথম কারণ,--সমালোচক প্রদুদিগের সতোর প্রতি অনুরাগের অভাব এবং তাহা- দিগের মানসিক সঙ্ধীর্ণতা ; দ্বিতীয় কারণ,--অজ্ঞতা।Haters সমালোচনা সাম্প্রদায়িক ARIS বা বন্ধুতার অনুশাসনে শাসিত, তাহাদের রচনাতেই এই বাক্যের অপব্যবহার-রূপ ব্যভিচারদোষ ঘটিবারই কথা। ইহাদের দোষ অমার্নীয়। এই মিথ্যা ব্যবসায়ী লেখকগণ মিথ্যার . প্রশ্রয় দিয়া সাহিত্য-চরিত্র নষ্ট করিয়া থাকেন। ARC বা স্থূপরামর্শ এই লেখক-সম্প্রদায়ের স্বেচ্ছাচারকে সংযত করিতে পারে ali সাহিত্য-গুরু বন্কিম ইহাদের সংশোধনের GT চাবুকের ব্যবস্থা করিয়া গিয়াছেন।আর এক শ্রেণীর লেখক আছেন, তাঁহারা 'মৌলিকতা” কথার ঠিক-মত অর্থ জানেন না। তাহাদের রচনাতেও সেই জন্য এ শব্দের অপ-প্রয়োগ দোষ ঘটয়| থাকে। বলা বাহুল্য, তাঁহাদের এ দোষ ইচ্ছাকৃত নহে। জ্ঞানক্বত পাপের সংস্পর্শ ইহাতে নাই। যে দোষ অজ্ঞতাজনিত, তাহা কতকটা ॥ TEA 1 তা” ছাড়া, কথাটার Stews বুঝাইতে পারিলে, তাঁহাদের এ Beসংশোধিত হইবার আশাও আছে। "এই আশা-পরবশ হইয়াই আমর! ছুই চারি- জন gee সাহিত্যিকের সাহায্য ae “'মৌলিকত”” বাকোর ay সুস্পষ্ট করিয়| দিতে প্রয়াস পাইতেছি।



Leave a Comment