জীবনের যাত্রাপথে | Jibaner Jatrapathe

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
জীবনের যাত্রাপথেপগাশর নতশিরে চলিয়া! গেল।যাইবার সময় কেতকী ay ক্রিল বিদায় সম্ভাষণ, না ফেলিল চোখের জল, এতটুকু নড়িতে vaya cael গেল না। তার দেহে যেন প্রাণ নাই, পাষাণম়ী পুত্তলিকা |পরাশর ভাবিল কেতকী হৃদ্য়হীনা'কেংকী মানষের হৃদয়ের বিচার করে ail |আবার সেই পথ, আবার সেই:যন্ত্র যান''পরাশর জানালার দিকে মুখ ফিরাইয়া নিশ্চল হইয়া বসিয়া রহিল! যে মন লইয়া! সে আমসিয়াছিল, সে মন লইয়া ফিরিতে পারিল না। cha aay করিয়া, টেলিগ্রাফের তারে বসি! যে বেঙ্চনী রঙের ছোট ছোট পাখীগুলি দোল খথাইতেছে। কচুরীপানায় আচ্ছন্ন পুকুর পাড়ে বাসনের গোছ! নামাইয়] বাংলার aga কৌতুহলী দৃষ্টিতে সচল গাড়ীথানির দিকে তাকাইয়! রহিয়াছে, এমনিতর ছোটোখাট sas চিত্রের দিকে পরালরের চিত্ত আর offen পড়িল না। tata মেয়ে হইলে খানিকট। ক[দিয়া মনের ভার লঘু করিতে পারিত।কিন্তু ও নাকি yma yey বেদনাতেও ওর চোখ দিয়া এক ফট! জল বাহির হইবে না। পরাশর নীল feta আকাশে দিকে চাহিয়া রহিল, এত we, এত প্রশাস্ত আকাশ, ইহার বুকেও আছে AT, আর আছে দুরস্ত দৈত্যের মত কালো মেঘ.-..।২১



Leave a Comment