হে অরণ্য কথা কও | Hey Aranya Katha Kau

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
Cz অরণ্য কথা কওরেখেচে, HSS FS ফুলের স্থবাস বাতাসে | ফালু মোড়লের ছেলে গনি, ও নগেন খুড়োর ছেলে HH ঘাটে নাইচে। গনি আমের চালাম নিয়ে' গিয়েছিল নফর কোলের বাজারে | একচল্লিশ দিন কলকাতায় ছিল, আজ এসেচে । দেশে এসেচি আজ চারদিন, এখন ও এখানকায় নতুনত্ব কাটেনি | ভগবানের WHI মধ্যে যে কত সৌন্দর্য্য তা দেখবার সুযোগ ও সুবিধা কি সকলের ঘটে ? চৈতন্তকে প্রসারিত করে দেওয়া চাই, নতুবা শুধু চোখ দিয়ে দেখলে কিছুই হয় না। মনকে তৈরি করে নিতে হয় এজন্তে, এর Aten চাই। বিন! সাধনায় কিছু হয় ali উচ্চতর অনুভূতির ay মনের আকুতি Atta প্রয়োজন। আকুতি থেকে ইচ্ছা, ইচ্ছা থেকে কর্ম্ম-প্রবৃত্তি।আজ হাওড়া AVY থেকে রবীন্দ্র জন্মোৎসবে সভাপতিত্ব করবার তাগিদ এল।© কলকাতা থেকে ফিরেচি কাল বৈকালে। ইউনিভাগিটির মিটিংএ সেখানে অন্লেকদিন পরে সুনীতি বাবু ও বহু পুরোণো বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে দেখা। মায়!দি ও বেলুকে নিয়ে রাত ৯টার ' সময়ে খাণী রায়ের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে কলকাতার অন্ধকার ভরা রূপের সঙ্গে অত্যন্ত প্রত্যক্ষ পরিচয় হয়েছিল'' গ্রামে ফিরলুম রবিবার বৈকালে, বেশ একটু মেঘবৃষ্টি দেখা দিলে, সামান্য একটু কাল-বৈশাখী বৈশাখের বিকেণে। তারপরেই আকাশে দেখা দিলে রাঙা CATE, আমি বেড়াতে গেলুম নদীর ধারের মাঠে, গাছপালার কি চমৎকার CAH) মুগ্ধ করে দেয় আমাকে, চেয়ে দেখে সত্যিই বিশ্ময় লাগে । কত কি গাছ, কত ধরণের পাতা। বিশ্বরপের কত কি রূপ! cafes চোখ পড়ে অবাক চোখে চেয়ে থাকি। বরোজপোতার বাশের বনে কচু ঝাড়, বেত গাছের ৬



Leave a Comment