বৈষয়িক বাংলা [সংস্করণ-২] | Baishaik Bangla [Ed. 2]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
প্রবন্ধ রচনা সম্পর্কে কয়েকটি কথা প্রবন্ধ ও তাহার শেণীবিভাগ--সাধারণভাবে দেখিতে গেলে, যাহা উপস্তাস, নাটক, কবিতা ইত্যাদির পর্যায়তুক্ত নয়, যাহার বাহন ty এবং মাধ্যম যুক্তি তর্ক, তাহাকেই প্রবন্ধ বলা চলে। আর, বু্যুৎপত্তির দিকে লক্ষ্য রাখিয়া বলিতে, হয় যে, HU ও Sweats বক্তব্য-বিষয়ের বাধুনিটি প্রকষ্ট ধরনের হইলেই: তাহা প্রবন্ধের ete লাভ করিবার যোগ্য । প্রবন্ধ সাধারণত দুই শ্রেণীর হইয়া থাকে । এক শ্রেণীর প্রবন্ধে থাকে বিষয্ণীর প্রাধান্য | এই শ্রেণীর প্রবন্ধগুলিই সাহিত্য-গুণ-সমস্বিত হইয়া থাকে এবং ইংরেজীতে ইহাদের বলা হয় Literary Essay; এখানে বক্তব্যবিষয়টকে আচ্ছন্ন করিয়া লেখকের ব্যক্তিসত্তা বা [email protected] প্রধান হইয়া উঠে। আর, তঅন্তশ্রেণীর প্রবন্ধে থাকে বিষয়ের প্রাধাল্য। এখানে বক্তব্য-বিষয়টিই লেখকের বাযক্তিসত্তাকে fared aq! এই শ্রেণীর প্রবন্ধকেই বৈষয্মিক প্রবন্ধ নামে অভিহিত 'করা যাইতে পারে। বৈষয়িক প্রবন্ধে বিষয়ের প্রাধান্ত থাকিলেও ইহা! সম্পূর্ণভাবে ব্যক্তিসত্তা-নিরপেক্ষ হইতে পারে না। একই বিষয়বস্তকে বিভিন্ন ব্যক্তি বিভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি (70976209006) হইতে গ্রহণ করিতে পারেন এবং বিভিন্ন রীতিতে উপস্থাপনা করিতে পারেন। সুতরাং দেখা যাইতেছে যে, কোন বিষয়বস্তকে গ্রহণ করার বিশিষ্ট দৃষ্টিভঙ্গি এবং উহার উপস্থাপন-রীতির মধ্য fil বৈষয়িক প্রবন্ধে ব্যক্তিসত্তার অনুপ্রবেশ Sie থাকে। বর্তমান গ্রন্থে সংকলিত প্রবন্ধগুলির মধ্যে কয়েকটির দিকে দৃষ্টি দিলে উপরোক্ত বক্তব্যটি পরিস্কুট হইবে বলিয়৷ আশা করা যায়। 'মানুঘ বনাম যন্ত্র) “নৈতিকবোধ বনাম ব্যবসায়বুদ্ধি, “বিজ্ঞাপন-শিল্প' প্রভৃতি কয়েকটি প্রবন্ধের ক্ষেত্রে বিষয়বস্তুগুলিকে এমন দৃষ্টিভঙ্গি হইতে গ্রহণ করা হইয়াছে এবং এমন উপস্থাপন-রীতি BPRS হইয়াছে যাহার ফলে, বিষয়বস্তুর মর্যাদা রক্ষা করিয়াও Calera মধ্যে সাহিত্যগুণ ete করা সম্ভবপর হইয়াছে। এই বিষয়বস্তুগুলিকে ছাত্রগণ ইচ্ছা করিলে অন্য Yeole হইতেও গ্রহণ করিতে পারেন এবং সে স্বাধীনতা SIAC আছে। প্রবন্ধের শ্রেণীবিভাগ সম্পর্কে উপরে যে-মন্তব্য করা হইল তাহা সাধারণভাবে গ্রহণুযোগ্য। কিন্তু বিশেষভাবে পরীক্ষার দিক হইতে লক্ষ্য রাঁখিয়! প্রবন্ধের শ্রেণী- বিভাগ করিতে হইলে ছাত্রের .কায়কটি কথা প্রয়ণ. রাখিতে হইবে। A



Leave a Comment