সাহিত্য-পরিষৎ-পত্রিকা [ভাগ-৬৯] | Sahitya-Parishat-Patrika [Pt. 69]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
ca] ১-৪ অমৃত-কুণ্ >চেয়েও সংকীর্ণতর--যেখানে তোমাকে মন্তকের উপরে ভর দিয়ে Hoes হবে। এইসব ংকট পার হবার পর তুমি সেই নগরে পৌছে | দেখবে নগরের দুইটি প্রবেশ পথ আছে -__ একটি বাহিরের আর একটি ভিতরের । প্রথম দ্বারে তুমি একজনকে দেখবে, সে হচ্ছে “of? রক্ত প্রবাহের ওপরে তাঁর আসন স্থাপিত । এ নগরের শামন ক্ষমতা, তার মঙ্গলামঙ্গল তাঁর হাতে। দ্বিতীয় দ্বারে আর একজনকে দেথবে, “দশন”, জলের উপরে তাঁর আসম। সে হচ্ছে এ নগরের নাজির। তৃতীয় দ্বারে আর একজনকে দেখবে, সে “aay”, তাঁর আমন অগ্নিতে, সে হচ্ছে নগরের ওুচর। চতুর্থ ঘারে আর একজনকে পাবে, সে 'আস্বাদ” তাঁর আমনও জলের উপর স্থাপিত। এঁ নগর প্রবেশের অনুমতি দেওয়। তাঁর অধিকারে । পঞ্চম দ্বারে যে আছে সে “আস্রাণ*, তাঁর আসন প্রবল ভোগেচ্ছায়। সে হচ্ছে এ নগরের স্বপতি ।”“আর, দ্বিতীয় প্রবেশ acre পাঁচটি তোরণ আছে। প্রথম তোরণ “সাধারণ Sfanigsfe” 1 সেখানে একজনকে পাঁবে ছলের উপরে উপবিষ্ট। তার প্রকৃতিতে আর্ডজতা বেশি; বিস্বতি তাঁর উপরে প্রবল। নগরের কোনও কঠিন সমস্যা তাঁর কাছে উপস্থাপিত হলে মে weeds সমাধান করে দেয় বটে, কিন্তু মে সমাধানকে why দিতে সে পারে না। দ্বিতীয় তোরণে ata একছনকে cara, মে “fowl” তাঁর আসন অগ্নিতে; Sta প্রকৃতিতে শুচ্ধতা বেশি । তার বোধশক্তি বিলপদ্বিত। তবে একবার বুঝলে সে কখন ও বিশস্বৃত হয় না, সর্বদা তা স্মরণে রাণে। তৃতীয় দ্বারে যাকে পাবে মে “মোহ”, তার আসন কামনাতে তার স্বভাব শীতলতার পক্ষপাতী; এ স্বভাবে সে faa বলে, দোষারোপ ও প্রবঞ্চনা করে। আর যা সে বোঝে না তাঁই করতে আদেশ করে। তার প্রতি মনোযোগ দিওনা। চতুর্থ দ্বারে যাকে দেপনে সে হচ্ছে “কল্পনা বা ভাবনা (concept); তার আসন অগ্নিতে, প্রকন্তুতি tp; কখনও তার স্বভাব cerca মত Sige বা দানব ও অস্তুরের মত হয়। সে বস্তুকে যুক্ত করে, বিযুক্তও করে। মগরের নানাবিধ আশ্চর্য বস্তু তাঁর অধিকারে যেমন কিমিয়া, যাদু, প্রহেলিক] ও সব রকম কারিগরী fort সে হচ্ছে নগরের wa সাবধান call তোমাকে সে ডুবিয়ে দিতে পারে। পঞ্চম দ্বারে যাকে পাবে, সে হচ্ছে স্মণ-শক্তি। তার আসন ভূমিতে, তার স্বভাব qaqa; তার উপরে sel ও ছলনা প্রবল। CH হচ্ছে নগররক্ষী, দ্বারীদের কার্য সে পরিচালন] করে।নগরে প্রবেশ করার পর তুমি সাতজন লোক দেখবে। একজন অগ্নি জালছে; সে হচ্ছে শোধক। দ্বিতীয়ঙ্ন ata করছে; সে স্মারক। তৃতীয়ঙ্গন ধারক; রান্না পাক করার সময়ে ধারণ করে থাকে। চতুর্ণজন পাঁচক, সে খাদছাকে যথাযোগ্যভাবে বিতরণ করে, অর্থাৎ wT বস্তু wy প্রকৃতিকে, আর স্কুল বস্তু FA প্রক্ুতিকে দেয়। পঞ্চম জমের কাছে যা পৌছায় সে তাঁকে পরিবতিত করে নিজের মত, অর্থাৎ পুষ্টিতে পরিণত করে নেয়। war খাদ্যের Gas ও উচ্ছিষ্ট অংশ বাইরে ফেলে CHT! আর ASA জন আর2



Leave a Comment