বাঙলার রণাঙ্গনে [সংস্করণ-১] | Banglar Ranangane [Ed. 1]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
১০ বাঙলার রণাঙ্গনেবিপ্লবীযুদ্ধে একটি রাইফেল হাতছাড়া হওয়া বড় ক্ষতি। শেষ্ঠ Pastors অন্যতম মাও সে-তুং বলেছিলেন, আমরা Sr বন্দুক দিয়ে জাপানীদের সঙ্গে লড়াই করেছি, জাপানীদের বিতাড়িত করেছি। স্ফনায় অনেক ক্ষতি হবে, অনেক অসুবিধা হবে, কিন্তু এরাও শত্রুর অস্ত্র কেড়ে নিতে পারবে। যতদূর সংবাদ আসছে তাতে জানা গেছে, মুক্তিযোদ্ধারা শত্রুর অস্ত্র কেড়ে নিতে পারছে। যোদ্ধাদের মনোবল, নেতৃত্ব আর দৃঢ়-সংগঠন প্রয়োজন । তা যদি থাকে তাহলে এহিয়ার পতন অনিবার্ধ। পৃথিবীর কোন শক্তির ক্ষমতা নেই এহিয়ার পতন রোধ করে। এইটাই হল আমার বীজগণিতের PITA |বীরেনবাবু aad বলল, আধুনিক অস্ত্র আর fray মানুষ! কি যে বলছেন কালার্টাদবাবু! হোসেন বক্সো আর ইনকাম ট্যাক্সোর সঙ্গে তুলনা করছেন।হেসে বললাম, তুলনাটা ঠিক হল না বীরেনবাবু। এখানে হোসেন বক্সো বলে যাদের তুচ্ছ করছেন, তাদের সত্যিই তুচ্ছ মনে করার কোন কারণ নেই। আর যারা ইনকাম ট্যাক্সো, তাদের গতর এত বেশী মুটিয়ে গেছে যার ফলে মোটেই নড়াচড়৷ করতে পারছে না।সলিল সেন বাধা দিয়ে বলল, অস্ত্র না হলে যুদ্ধ করবে কি দিয়ে ? শক্তির উৎস হল রাইফেল । মাও সে-তুং সেই কথাই বলেছেন। সেই হাতিয়ার যাদের নেই, তারা যুদ্ধ করবে একদল সুশিক্ষিত সৈন্যের সঙ্গে, এমন আজব আজগুবি ঘটন৷ কেউ বিশ্বাস করবে কি?| বললাম, তোর.কথা ঠিক। মাও সে-তুং বলেছেন, বন্দুকের নলক্ষমতার উৎস। তোরা মাও সে-তুংএর সমস্ত বক্তব্যের মধ্যে এটুকুই জানিস। মাও এর সঙ্গে আরও একটি কথা! বলেছেন সেটা তোরা জানিস না, জানলেও তা স্বীকার করিস না। যেখান থেকে



Leave a Comment