তিনটি এয়াডভেঞ্চার কাহিনী | Tinti Adventure Kahini

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
কিছুক্ষণের মধ্যেই বেলুন পুর্ব ট্যাঙ্গানিক| হ্রদ থেকে উৎপন্ন মালালারাজী নদীর কাছে এল ! দেশটা বিরাট বিরাট লম্বা ঘাসে আবৃত was মাঝে দেখা গেল বিশাল কুঁজওয়াল। গরুর পাল চরছে। গভীর বনের মধ্যে ape গরমের সময় সিংহ, চিতাবাঘ, SHA ও বাঘের আত্মগোপন করে থাকে । মাঝে মাঝে মটমট করে ডাল ভেঙ্গে বিশালকায় হাতীদের নেমে আসতে দেখা যায়।সহসা বিছ্যুৎ চমকালে৷। । কান ফাটা বজ্রের আর্তনাদ। বৃষ্টি ও ঝড় আসবার আগেই ওদের pala আগুন বাড়িয়ে আকাশের বু উপরে উঠে যেতে হবে। নয়ত বেলুনের রক্ষা নাই। তবুও পারা গেল atl প্রচণ্ড ঝড় ও শিলাবৃষ্টির বাধা পরিপূর্ণ এড়ানে গেল না।প্রচণ্ড Hit কাটিয়ে বহু কষ্টে জীবনযৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করতে করতে একসময় ওর বেলুনকে নিয়ে wets উপরে উঠে এল। বারো হাজার ফুট উপর দিয়ে নিবাপদে চলতে লাগল বেলুন face তখন প্রচণ্ড তুফানের দাপাদাপি।এবার এল পাহাড়ে দেশ। পরদিন সকাল হতেই দেখা গেল চতুর্দিকে পাহাড়। এদের নাম কারাওয়ে। প্রবাদে বলে এরাই নাকি নীল নদের দোলমনাস্বরূপ। এরাই নাকি উকেরিঙই নামক বিরাট জলাশয়ের একদিকের দেয়াল হয়ে দাড়িয়ে আছে ( এর বর্তমান নাম ভিক্টোরিয়া নায়েঞ্জ! )। এখানে ১৮৫৮ খৃষ্টাব্দের Cal আগস্ট ক্যাপ্টেন core পদাপণ করেছিল |ছুপুরে Zena উপর দিয়ে বেলুন চললো az বিশাল জঙলরাশির নাম ক্যাপ্টেন স্পেক দিয়েছিল ভিক্টোরিয়া! arse) ভিক্টোরিয়) দেশের রাণী আর ATCA শব্দের স্থানীয় অর্থ হল হুদ |নীল নদের উৎপত্তিস্থল abi; এই নদীই নিচে পড়েছে qe দূরের ভূমধ্যসাগরে |নত১৩



Leave a Comment