পরিচয় | Parichay

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
আবার যখন ভাবি এই সব সংখ্যাহীন বহুতলবাড়ী যদি পৃথিবীর পৃষ্ঠে বিছিয়ে দেওর|] যেত ভবে কতবার পৃথিবী বেষ্টিত হতে পারত, অর্থাৎ নৈসগিক কারণে পৃথিবীর ক্ষেত্রতল যতটা পরিমাণ বিস্তৃত হয়ে স্ষ্ট হয়েছে মানুষ তার প্রয়োজনের তাগিদে তার উপরে আরো অনেক লক্ষ বর্গগজ “জমি' নিজে we aca নিয়েছে |শুধু কি তাই? নৈসগিক জমি স্থাবর, থিওডোলাইটের মাপ ভুল হতে পারে, কিন্তু জমির স্থান পরিবর্তন হয় না। নদীর এক কুল যদি ভাঙে, অপর কুল গড়ে ওঠে । তাতে জমির মালিকের হয়ত লোকসান হয়, কিন্তু ধরাপৃষ্ঠের চৌহদ্দিটা বাড়ে কমে না। owe বৈজ্ঞানিক হিসাবে যদিই বা কিছু কমতি-বাড়তি ধরা পড়ে, স্থল চোখে মনে হবে মোটামুটি সব ঠিক আছে |অপর পক্ষে মানুষের AW জমি জাহাজের বুকে জলের উপর ভাসে, বিমানে আকাশে ওড়ে, চলমান ট্রাম-বাস ট্রেনে এক মু্তুক থেকে আর এক TECH চলে যায়, অর্থাৎ তার৷ সচল, স্থান পরিবর্তন করতে পারে। আমার বাব৷ যে বাড়ীতে বাস করতেন সেটা নিয়ে আসতে পারেন নি, কিন্তু যে গাড়ীতে চড়তেন সেটা সঙ্গে নিয়ে আসা সম্ভব হয়।সব বুঝি, না বুঝলেও সেন সাগ্হে বোঝাতে থাকে। সে জানে, ভিটের মায়ায় লাভ নেই, ওট! নেহাত ভাবালুতা মাত্র।বিজ্ঞান ছেড়ে সেন অর্থনীতির দৃষ্টান্ত দেখায়। ল্যাগু-লেবার-ক্যাপিটাল অর্গানাইজেশান,-_মুখ্যত এই চারিপদ বিভাগে বিভক্ত উৎপাদন ব্যাবস্থা । যা কিছু করতে চাও জমি, তুমি বা ভিত্তি চাই। তবে অর্থনীতির জমি কেবল পৃথিবী পৃষ্ঠ না বোঝাতেও পারে। তাতে জমির আরো ব্যাপক ভাব গ্রহণের প্রয়োজন আছে। অর্থাৎ অর্থনীতির বিচারে জমির প্রয়োজন স্বীকার করলেও সেটা বাস্তুভিটাই হওয়ার কোন সার্থকতা নেই ।4



Leave a Comment