বসরাঈ-গুল | Basrai-gul

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
“ক্ফিসত”বস্রাঈ-গুলের অধিকাংশ গজলই ১৯১৮)১৯ সনের লেখা। সে সময়ের লেখা এতদিন পরে কেন যে মুদ্রিত করা হচ্ছে তার কিছু কৈফিয়ৎ দেওয়া বোধ হয় অপ্রাসঙ্গিক হবে না। কিন্ত যেখানে বকৈফিয়ৎ, সেখানেই আত্মোল্লেখ; এবং আত্মোল্লেখের মত বে-আদবী বোধ হয় আর GF তাই, নীচে কয় ছত্র কৈফিয়ত স্বরূপ পেশ. করার পূর্বে, আমি সেই বে-আদবীর ey ক্ষমা-প্রার্থী।১৯১৯ সনে আমার লিখিত “রেডিয়ম্‌ ধাতু” বিষয়ক একটা বৈজ্ঞানিক প্রবন্ধ নিয়ে সম্পাদক বিশেষের সাথে, একটা শব্বের শুদ্ধতা বিষয়ে বচসা হয়। সেই সময় কাচা-খুনের মিছে-গর্মির বশবর্তী হয়ে, প্রবন্ধটী তার কাছ থেকে কেড়ে নিয়ে আসি ও প্রতিজ্ঞা করি যে--কাগজে প্রবন্ধ বা কবিতা কোন কালেই দেওয়ার চেষ্টা করবো না। এই ঘটনার অব্যবহিত পরেই, কোনও ব্যাপারে ভাগ্য-চক্রের অন্থমিত-গতিতে এক সাংঘাতিক বৈষম্য ঘ্টাতে মনের দ্বিরতারও পরিমেয় কেম্দ্র-চ্যুতি ঘটে । ফল এই দাড়ায় যে, কোনও লেখা প্রকাশ ST প্রয়াসই পাইনি । তারপর, পাচ-সাতবার এ শেল্ফো ও CCH আব_ -হাওয়া বদল করুতে করুতে যখন পাগুলিপিগুলো উই পোকার ক্ষুদ্র চোক্ষে পড়তে লাগলে, তখন থেকে ছেপে ফেলার WS সাময়িক-ইচ্ছা! মাঝে মাঝে হ'ত 1 কিন্তু, বোধ হয়, লেখা গুলোর প্রতি আমার উহ্‌-মনের বীতস্পৃহতা ছিল, ও (আমার বিশ্বাস) সেই জন্যই মুদ্রিত করার প্রবল ইচ্ছা Faas আমাকে উৎপীড়ন STS Al | ফলতঃ--ছাপাও VS Al | এই রকম করেই এত কাল



Leave a Comment