কবিতাসমগ্র ৩ [সংস্করণ-১] | Kabitasamagra 3 [Ed. 1]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
গণ্যমান্য লোক যান রাজধানী গরিব চাকুরে যায় নিজ কর্মস্থানে PPS! দুর্লভ নয়, রাজন্য বা ধনপতি অথবা কেরানিছুটির মেয়াদ অস্তে চলেছে দপ্তরে কেউ লোকসভা কেউবা কংগ্রেসে, সুস্থ বা অসুস্থ দেহে কিংবা-বা-এবং মনে, সর্বভারতীয় নানাবেশেকেউ হিমে কেউ ঘামে নানান শ্রেণীতে, সকলেই জানিএকই ট্রেনে সকলেই দিল্লি চলে, BEVIN. হিন্দির সাগরেসবাই বিচ্ছিন্ন স্বীয় দ্বীপে দ্বীপে, ভিন্ন আর দূর ।দৃশ্যটা করুণ লাগে, হয়তো বা বাঙালি ছাপোষা, ছেলেমেয়ে হাত ধরে, বিচ্ছেদব্যথায় ভাবে প্রবাসীর স্বাস্থ্যের উদ্বেগে, ভাবে ঘরেস্বস্তি ভালো, ঘনিষ্ঠের নিশ্চিতিতে ভাবে বেকসুরকী হবে এ উম্নয়নে, তাই চোখমুখ লাল, ভাবে এ কী গেরো !বাতের ব্যথায় থাকে পাদানি-তে প্ল্যাটফর্মে দরজাটা faraঅনেকেরই ছেলেমেয়ে, গণ্যমান্য বা সামান্য লোকেরও,যারাই দিল্লির যাত্রী নানান্‌ শ্রেণীতে নানা আদর্শে, ফিকিরে-_করুণ বিদায়, তবু দৃশ্যটা দুর্লভ নয়, প্রায় নিত্য দেশের বিদায়— facta চাকুরের নির্বিত্তের নেতাদের দেশ প্রায় রেলপাতা প্রতীক যেখানে, গৃহ আর গন্তব্যের লক্ষ্য আর উপলক্ষে বিচ্ছিন্ন ব্যথায় |তাই কি দেশের ছেলেমেয়ে থাকে উদ্্তরীব দাঁড়িয়ে এই ফিনল্যান্ড স্টেশনে ॥ ৭ অগস্ট, ১৯৫৯জাতীয় সংরক্ষণ Hara ধৃতিকাস্ত লাহিড়ী চৌধুরীর জন্যমনে পড়ে সর্বদাই অন্ধকারে নির্ভাঁক প্রাণের অগ্নিময় চোখগুলি, হরিণের, esr, বাঘের |শিকারের শখ নেই, শুধু শিকারি বন্ধুর সঙ্গআর মোটরের কল্যাণে ছুটিটা এদিকে ওদিকে মাঝে মাঝে কাটে বেশ । একাধিক জাতীয় জঙ্গলে বহু কষ্টে জিয়ানো কত না হৃষ্টপুষ্ট পশুপাখিকাবার দেখেছি, আর বন্য বাংলোয় ভোজ উপভোগ করা গেছে প্রাকৃতিক সকালে HAT |১৬



Leave a Comment