রসাঞ্জন | Rasanjan

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
ভাঁমকাউপক্ষান্বের উপর গবেষণার বিভিন্ন দিক আছে। উপক্ষারের জন্য গাছের চাষ করার প্রয়োজন হয়। উপরস্ত যাতে এ গাছে বেশি পরিমাণে উপক্ষার জন্মাতে পারে তার জন্য সেই মত সার দিতে হয়। কুইনিন উপক্ষার ম্যালেরিয়ার অব্যর্থ ওষুধ। কুইনিন প্রসবিনী সিনকোনা গাছের আদি বাসস্থান হল দক্ষিণ আমেরিকায় । চেষ্টা করে সিনকোনার চাষ Sa হয়েছে যবদ্বীপে, বাংলাদেশে ও মাদ্রাজে। বৈজ্ঞানিক মতে চাষ করে সগিনকোনাব কুইনিনেব পবিমাণ বাড়ানো গেছে।** হায়োসিয়ামাস্‌ (Hyoscyamus ), আাট্রোপ! (Atropa) ও আমাদের দেশের ধুতুরায় (Datura stramonium) হায়োসিয়ামিন উপক্ষার SHR! এর থেকে চক্ষুচিকিংসায় ব্যবহৃত আযাট্রোপিন উপক্ষার তৈবি হয়। আ্যাট্রোপা বেলেডোনা গাছ (Atropa belladonna) ও ধুতুরার চাষ কবে উপক্ষারের পরিমাণ দ্বিগুণ বাড়ানো গেছে।ংএক দল বিজ্ঞানী প্রয়োজনীয়তার দিকে তত জোর না দিয়ে আবিষ্কাবের কৌতূহলের দিকটা বাড়িয়ে তুললেন ৷ তারা গাছপালাজাত উপক্ষাবগুলির অণুব গঠন নিয়ে গবেষণা কবতে গেলেন। এ ধরনের গবেষণা ইউবোপে MAS হয় উনবিংশ wera শেষ ভাগ থেকে ।*ং এখন আমরা! উপক্ষাবের বিভিন্ন কাঠামো অনুলারে তাদের বিভিন্ন শ্রেণীভুক্ত কবতে পাবি। যেমন বসাঞ্জন বা দারুইরিদ্রান্থিত উপক্ষার বার্বেরিনকে বলি আইসোকুইনোলিন উপক্ষাব। কুইনিনকে বলি কুইনোলিন উপক্ষার। উপক্ষারগুলিকে রাসায়নিক প্রণালীতে বিশ্লেষণ ক্রে যেমন তাদের AIT গঠন সম্বন্ধে AAA Fal গেল, অমনি চেষ্টা চলতে লাগল কি করে পরীক্ষাগারে সেগুলিকে সংশ্লেষিত করা যায়। বিজ্ঞানীদের কৌতূহল আরও বেড়ে যেতে লাগল। তাঁরা উপক্ষারের গঠন META কবে এঁ রকম বা এ জাতীয় রাসায়নিক পদার্থ পরীক্ষাগারে



Leave a Comment