কাব্য জিজ্ঞাসা [সংস্করণ-২] | Kabya- Gigyasa [Ed. 2]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
Weইংরেজ কাব্য-সমালোচকদের ইংরেজী বচন তুলে, ইংরেজ কবিদের কাব্য থেকে উদাহরণ দিয়ে লিখলে এ সম্দেহ কারও হত না যে, মীমাংসাগুলি কেবল ইংরেজী কাব্য-সাহিত্য সম্বন্ধেই সত্য, আর কোনে! কাব্য-মাহিত্য সম্বন্ধে নয়।স্কৃত আলঙ্কারিকদের যে-সব কথা ও মতামতের আলোচন1 করেছি, তা যদি সকল কাব্য-সাহিত্যে সমান প্রযোজ্য না হত, তবে সেগুলি হত প্রত্বতাত্বিকের আলোচ্য এবং আমাদের মত “এমেচিয়র'-এর বিভীষিকা । তাদের আলোচনা ও মীমাংস| বিশ্বজমীন, ও সকল কাব্য সাধারণ--এই বুদ্ধি ও বিশ্বাসেই তার পরিচয় দিতে উৎসাহিত হয়েছি। যদি সে পরিচয়ে পাঠকের অন্য রকম ধারণা হয়, সে ত্রুটি আমার, সংস্কৃত আলঙ্কারিকদের বা কবিদের নয়। মানুষ বিশেষকে পরীক্ষা করেই সাধারণকে পায়, কারণ সাধারণ হচ্ছে যা নানা বিশেষের মধ্যে সাধারণ। সেজন্য সকল বিশেষকে পরীক্ষার প্রয়োজন হয় না, এবং তা অসম্ভব। যার দৃষ্টি আছে, সে একটি বিশেষকে পরীক্ষা করেই সাধারণকে ধরতে পারে | সংস্কৃত কবিদের কাব্যে যদি কাব্যত্ব থেকে থাকে, আর সংস্কৃত আলঙ্কারিকদের যদি তত্বদণিতার অভাব না থেকে থাকে, তবে, বিশ্ব-সাহিত্যের খবর না রেখেও, আলঙ্কারিকদের সকল কাব্যের মূলতত্ত্ আবিষ্কারের মধ্যে সন্দেহের কিছু নেই । যেমন ইংরেজ সমালোচকেরা সংস্কৃত কাব্য-সাহিত্যের কোনে খবর ay রেখেও সকল কাবা-সাধারণ কাব্যত্ব নিয়ে আলোচনা করেন। আ্যারিষ্টটল্‌ ‘ita’ লিখেছিলেন, কিন্তু গ্রীক কাব্য-সাহিত্য ছাড় আর কোনো কাব্য-সাহিত্যের সঙ্গে তার পরিচয়



Leave a Comment