ভারতের জাতীয় কংগ্রেস | Bharater Jatiya Congress

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
নে SAZMe MER. wont Call iN U.oet Ao ০, ৩৬০৪৬৩৬৩৪৯৯ 'ত৭ী'Aeon Ne. REF derept. of seen. 0.0197: ভারতের SHO কংগোস প্রথম অধ্যায়১৮৮৫ খৃষ্টাব্দে ভারতবর্ষের জাতীয় মহামম্মেলন বা কংগ্রেসের জন্ম। প্রথমে ইহ] ছিল বংৎসরান্তডের একটা মিলনসভা মাত্র। কিন্তু পরে ইহাই ক্রমে একটা মহামহীরুহে পরিণত হইয়াছে। জাতীয় মহাসমিতি aie জাতীয় বিশাল শক্তিতে সমৃদ্ধি লাভ করিয়াছে । ইহার প্রভাব কাহাকে না নত করে? একদিন ইহার স্ববিশাল শক্তিই ইহার সাধনা পূর্ণ করিবে।কিন্তু ন্যূনাধিক এই we শতাক্দীতেই কি কংগ্রেস এত অমোঘ শক্তি অর্জন করিতে সমর্থ হইয়াছে ? সে দিনই কি সবে ইহার জন্ম হইয়াছে ? সত্যই কি এত অল্প দিন হইতে ইহাকে বাড়িতে দেখিয়াছি? ঠিক তা নয়। ফুল তো একদিনেই ফোটে না। কত যুগ-যুগাম্তরের সাধন! যে ইহার পশ্চাতে নিহিত থাকে, কে তাহার তত্বান্তুসন্ধান করে? আমাদের জাতীয় ইতিহাসও সে দিন হইতেই মারম্ভ হয় নাই। বহু শতাব্দী ধরিয়া ভারতীয় আধ্যগণ নিজ শৌধ্য, স্বাধীন foe! ও sa প্রভাবে হিন্দুস্থানকে যে পুণ্যভূমিতে পরিণত করিয়াছেন, সেই সাধন৷ সমভাবেই তাহার রক্তের ভিতর দিয় প্রবাহিত হইয়| কেবল নিজের স্বধর্মনিট ব্যক্তিগণকেই সঞ্জীবিত রাখিতে সমর্থ হয় নাই, পরস্ত BI নবাগত ভ্রাতৃবৃন্দের--শক, হুন, পাঠান, মোগল প্রভৃতি সকলকেই সমভাবে আপনার করিয়। লইয়াছে। এই যুগ-যুগান্তরের সাধনাই ভারতবর্ষের অস্তিত্ব বিলুপ্ত হইতে দেয় নাই, এই সাধনাই ক্রমে ইহার প্রাধান্য বাড়াইয়াছে, নার এই সাধনাই কালে ইহার প্রভৃত্ব বিস্তার করিবে।



Leave a Comment