বঙ্গসাহিত্যের ইতিহাস | Bangasahityer Itihas

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
2 বঙ্গসাহিত্যের ইতিহাসঅপ্রত্যাশিত ঘটনা! নহে, যুগের প্রয়োজনেই ইহার বিকাশ। এই প্রয়োজন কেবল নূতন শ্রোত্মগুলীর রসবোধের পরিবর্তনের Sy নহে, BHT TET সংস্কৃত দাঁহিত্যের অস্তনিছিত Sipets জন্যও বটে। সংস্কৃত কবিদিগের দৃষ্টিতঙগীর মধ্যেই ছিল ক্ষয়ের বীজ । বস্তকে গৌণ করিয়! তাছার রূপকেই বড় করিয়া দেখা, জীবনকে অপ্রধান করিয়। আঙ্গিক বা প্রকাশভঙ্গীকে প্রাধান্য দেওয়া-- অর্থাৎ শিল্পবিলাদই ছিল নংস্কত যুগের কাব্যের cafes) কালিদাসাদ্দির কাব্যে এই শিল্পবিলাদ eters পাইলেও তাহা Aer. ও জীবনকে একেবারে অস্বীকার করে নাই ; কিন্তু fey রাজত্বের শেষের fice কাব্যধর্ম জীবন ও জগতের লহিত ঘোগস্থত্রহীন ও বাক্চাতুরীসর্বস্ব হইয়া উঠিয়াছিল। sists ধ্বংসের বীজ | CHE সময়ে সংস্কৃত সাহিত্যের ভাষা ক্বত্রিম, বিষয় Hie, ভঙ্গীও Siam; তাই ভারতে Fa wan প্রাণময় সাহিত্যের প্রয়োজন অঙ্গভূত হইয়াছিল | cat প্রয়োজন মিটাইতে সহজ সরল প্রাণপূর্ণ গ্রাম্য গীতিকা লইয়া আনিভূত হইয়াছিল বঙ্গসাহিত্য, বাঙ্গালী কবি জয়মেবের “গীতগোবিন্দে” সংস্কৃত ও বাংলা এই উভয় কাব্যধর্মের সম্মিলন দেখা যায়।বঙ্গলাহিত্য নবজাত সাহিত্য। কিন্তু তাহার পক্ষে গৌরবের কথা,*তাহার প্রথ্বয নিদর্শনের মধ্যেও প্রাথমিক প্রচেষ্টার অস্পষ্টতা, অস্ফুটতা ও FAT দেখা যায় না। বাঙ্গাল! ভাষার প্রাচীনতম রচনা “চর্যাপদ আদিম ছড়া gl রূপকথার ara বালকোচিত নহে । ইহার কারণ আছে । প্রাচীন বঙ্গদাহিত্য প্রধানত: wines হইলেও অশিক্ষিত জনগণের ছারা we সাহিত্য নহে। উহার লেখকেরা যে BIfes ও wate ছিলেন, এরূপ waaay করিবার কোনে! etd নাই; বরং স্বীকার করিতে হইবে cq তাঁহারা কালোচিত শিক্ষায় শিক্ষিত হইয়া ও চিত্ত-প্রপার ও ASIST wa গতান্গগতিক slay সংস্কৃত ভাষা ও রীতি ত্যাগ করিয়াছিলেন এবং জনসাধারণের সঙ্গে একাত্মতা স্থাপনের জন্যই নিজেদের ভাব ও চিন্তাকে অকৃত্রিম মৌখিক ভাষার মাধ্যমে জনসাধারণের কাছে পৌছাইয়া দিয়াছিলেন। বাংলা চর্যাগীতিকার সংস্কৃত টাকা এবং 'শ্ীকষ্ণকীর্তনে”র প্রতি সর্গের পুষ্পিক। বা পরিচয়াত্মক সংস্কৃত প্লোকগুলি উহাদের লেখকের বিদ্তাবত্তার অখগুনীয় প্রমাণ |অবশ্য নৃতন লাহিত্যে কিছু কিছু অপরিণতির ত্রুটি থাকিবেই fee



Leave a Comment