তিমির-তীর্থ [সংস্করণ-২] | Timir-tirtha [Ed. 2]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
তিমির-তীর্থ ৩নলসি fea বাজারে সনাতনের কাপড়ের দোকান। গ্রামধানা বড় বলিয়াই বাজারটি মোটামুটি মন্দ নয়, সনাতনের ছোট দোকানটিও ইহারি মধ্যে ভালোয়-মন্দে বেশ একরকম চলিয়! আসিতেছে । way, পূজার সময় বাবুর যখন বিদেশ হইতে একটিবার করিয়৷ দেশে পদাপণি করেন, তখন কাপড়ের বড় বড় গাটও তাহাদের সঙ্গেই আসে । কিন্তু সকলের অবস্থা তো আর সমান নয়। যে সমস্ত নিম্নবিত্ত বাসিন্দাকে গ্রামেই বারো মাস কাটাইতে হয়, সনাতনের অনুগ্রহের উপর নির্ভর না করিয়া তাহাদের উপায় নাই। দুই চার আনা বেশী লাভ যদি সে করে তো করুক কিন্তু মানুষের সব দিন এমণ কিছু আর সমান যায় না। ধরো, পূজার সময় যেবার ছেলেপিলেকে কাপড় কিনিয়| দ্বিবার সঙ্গতি থাকেনা, সেবার তো ধারের জন্য বাধ্য হইয়া তাহার কাছেই আসিতে হয়। টিনের দোকান ঘরটার কাঠের চৌকাঠের উপরে যদিবা কাচ অক্ষরে লেখা তোবড়ানে৷ সাইন বোর্ড ঝুলিতেছে “aca বস্ত্রালয়,” তবুও পুজার এই সময়টাতে রেলি ব্রাদাসের রূপালি ছবিওয়ালা ফুল- পেড়ে ধুতিগুলি দেখিতে দেখিতে কাটিয়। যায়; বিলাতী কাপড়ে বোম্বে মিল্সের ছাপ-মারা মিহি বড় পাড়ের শাড়ীগুলি ঘরে ঘরে শারদীয়) উত্সব বধনের সহায়তা করে।তাহার কথার স্মত্র ধরিয়াই মুকুন্দ জিজ্ঞাস! করিল : এবার পুজোয় কত টাকা ঘরে তুললে, সনাতন কাকা ?সনাতন Safes করিল, মুখে তাহারা স্পষ্ট বিরুক্তিয় ছায়া |--ঘরে তোলবার আর উপায় রেখেছ তোমরা? কলকাতার দোকান থেকে বেশী দাম দিয়ে কাপড় কিনে তোমরা তিনশো মাইল পথ ঘাড়ে করে আনবে অথচ BAA কী দোষটা ক্রলুম শুনি Awry



Leave a Comment