মানস-প্রতিমা [সংস্করণ-২] | Manas-protima [Ed. 2]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
তৃতীয়কলিকাতার কোন্‌ এক বস্তী সংলগ্ন sin satis গৃহের মালিক Bata মানমকুমার মিত্র যখন তাহার দাতব্য চিকিৎসালয়ে গরীব ও ge বস্তীবাসী রোগীদের রোগ পরীক্ষান্তে বিনা পয়সায় কবিরাজী ওষধ দিতেছে তখন তাহার সহকারিণী একমাত্র বিধব| ভগিনী মীনা বলিল, “মানস ! চেয়ে eae, দুপুর পেরিয়ে গেছে-_-এখন স্নানাহার শেষ ক'রে কিছু বিশ্রাম কর ।”--উত্তরে মানস বলিল, “দিদি ! রোগীদের গুষধ পথ্যের ব্যবস্থা না ক'রে দিয়ে নিজে we শরীরে কি ক'রে বিশ্রাম ক'রব বল ! গরীবের ভগবান Gani কিন্তু তাদের প্রতি সহানুভূতি দেখান ও কিছু কিছু কর্তব্য পালন করা প্রতি মানুষেরই উচিত | Wear এদের যত faye সম্ভব ওষুধ দিয়েই আমি স্ন[নাহার নিশ্চয়ই ক'রব। কিন্তু বিশ্রাম ! বিশ্রাম বোধ করি ভগবান আমার অদৃষ্টে লেখেন নি। আজ বিকেল পাঁচটায় আমারই এই দাতব্যখানায় মিটিং আছে। বন্ধু স্বপনকুমার ARCATA দিন দিন অধঃপাতে ষাচ্ছে। তার একটা স্ব্যবস্থা না sai পর্যন্ত নিশ্চিন্ত হ'তে পারছি কই !”রোগীকে ওষধ দিয়া দাতব্যখানা হইতে মুক্তি লইতে মানসের প্রায় সাড়ে তিন্টা বাজিয়। গেল । মানস মহা তৃপ্তি সহকারে ঈষৎ হাসিয়া দাতব্যখানার এক কোনে যে কল লাগান



Leave a Comment