প্রবাসী [ভাগ-৮] [সংখ্যা-১] | Prabasi [Pt. 8] [No. 1]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
১ম সংখ্যা: | সুচরিতা 'ও পরেশ বাবুর কল্পাদের অস্তিত্ব সম্বন্ধে গোরা ' সম্পূর্ণ উদাসীন ছিল, Stata পরে মধ্যে অবজ্ঞাপূর্ণ বিরুদ্ধ ভাব তাহার মনে জঙন্মিয়াছিল; এখন তাহার মনে একটা কৌতূহলের উদ্রেক হইয়াছে। বিনয়ের চিত্তকে কিসে যে এত করিয়া আকর্ষণ করিতেছে তাহা জানিবার qa তাহার মনে একটা বিশেষ আগ্রহ জন্মিয়াছে। উভয়ে যখন পরেশবাবুর বাড়ি faint পৌঁছিল তখন সন্ধ্যা হইয়াছে । দো গলার ঘরে একটা তেলের সেঞ্জ জালাইয়া হারান তাহার একটা ইংরেজি লেখা পরেশবাবুকে গুনাইতে- ছিলেন। এ স্থলে পরেশবাবু বস্তুত উপলক্ষা মাত্র ছিলেন-- সুটরিতাকে শোনানই তাঁহার উদ্দেশ্ব ছিল। সুচরিতা টেবিলের দূরপ্রান্তে চোখের উপর হইতে আলো আড়াল করিবার জন্য মুখের সাম্নে একট! তালপাতাব পাথা তুলিয়া ধরিয়া চুপ করিয়া বসিয়াছিল। সে আপন স্বাভাবিক বাধ্যতাবশত প্রবন্ধটি শগুনিবার aw বিশেষ চেষ্টা করিতেছিল, কিন্তু থাকিয়া থাকিয়া তাহার মন কেবলি অন্য দিকে যাইতে- ছিল is এমন, সময় চাকর আসিয়া যখন cottal ও বিনয়ের আগমন-স্‌ংবাদ জ্ঞাপন করিল, তখন স্থুচরিতা হঠাৎ চমকিয়া ' উঠিল। সে চৌকি ছাড়িয়া চলিয়৷ যাইবার উপক্রম করিতেই পরেশবাবু কহিলেন-_“রাধে, যাচ্চ কোথায় ? আর কেউ নয় আমাদের বিনয় আর গৌর এসেচে 1” স্নচরিতা সঙ্কুচিত হইয়া আবার বসিল। হারানের সুদীর্ঘ ইংবেজি রচনা পাঠে ভঙ্গ ঘটাতে তাহার আরাম বোধ . হইল.; গোরা আসিয়াছে শুনিয়া তাহার মনে যে একটা উত্তেজন] হয় নাই তাহ।ও নহে কিন্তু হারানবাবুর সম্মুখে , গোরার আগমনে তাহার মনের মধ্যে ভারি একটা অস্বস্তি এবং ALTE বোধ হইতে লাগিল। দুজনে পাছে বিরোধ বাধে এই মনে করিয়া! অথবা কি যে তাহার কারণ তাহা বলা শক্ত। i ; গৌরের নাম গুনিয়াই হারানবাবুর মনের ভিতরটা একেবারে faye হইয়া উঠিল। গোৌরের নমস্কারে কোনো- মতে '"প্রতিনমন্কার করিয়া তিনি গম্ভীর হইয়া বসিয়া রহিলেন। হারানকে দেখিবা মাত্র গোঁরার সংগ্রাম করিবার প্রবৃত্তি | সশস্তে SHS হইয়া উঠিল।4গোরা | ৬বরদাস্থন্ারী তাহার তিন মেয়েকে লইয়া নিমন্তরণে গিয়াছিলেন ; কথা ছিল সন্ধ্যার সময় পরেশবাবু গিয়া তাহাদিগকে ফিরাইয়া আনিবেন। পরেশবাবুর যাইবার সময় হষটয়াছে। এমন সময় গোরা ও বিনয় আসিয়া পড়াতে তাঁহার বাধা পড়িল। কিন্তু আর বিলম্ব wai উচিত হইবে না জানিয়া তিনি হারান ও সুচরিতাকে কানে কানে afore গেলেন “তোমরা এঁদের নিয়ে একটু বোম, আমি যত Ay পারি ফিরে আস্চি 1”দেখিতে দেখিতে গোর! এবং হারানবাবুর মধ্যে তুমুল তর্ক বাধিয়৷ গেল । যে প্রসঙ্গ লইয়৷ তর্ক তাহা এই £-- কলিকাতার অনতিদুরবর্তী কোন জেলার ম্যাজিষ্টেট্‌ ব্রাউন্লো সাহেবের সহিত ঢাকায় থাকিতে পরেশবাবুধের আলাপ হইয়াছিল । পরেশবাবুর স্ত্রী Sota অস্তঃপুর হইতে বাহির হইতেন বলিয়া সাহেব এবং তাহার স্ত্রী ইহাদিগকে বিশেষ খাতির করিতেন। সাহেব তাহার জন্মদিনে প্রতিবৎসরে কৃষিপ্রদশনী মেলা করিয়৷ থাকেন। এবারে বরদান্মুনারী ব্রাউন্লো সাহেবের Hla সহিত দেখা করিবার সময় ইংরেজি কাব্য সাহিত্য প্রভৃতিতে নিজের কল্াদের বিশেষ পারদরশিতার কথা উত্থাপন করাতে মেম সাহেব সহসা কহিলেন, এবার মেলায় লেপ্টেনান্ট, stata সন্ত্রীক আসিবেন।* আপনার মেয়েরা যদি তাঁহাদের সম্মুখে একটা ছোট খাট ইংরেজি কাব্য নাট্য অভিনয় করেন ত বড় ভাল হয়।--এই প্রস্তাবে বরদাস্তুন্দরী were উৎসাহিত হইয়া উঠিয়াছেন। আজ তিনি মেয়েদের রিহাসাল্‌ দেওয়াইবার জন্যই কোনে বন্ধুর বাড়িতে লইয়া গিয়াছেন! এই মেলায় গোরার উপস্থিত থাকা সম্ভবপর হইবে কিনা জিজ্ঞাসা করায় গোর! কিছু Baws উগ্রতার সহিত বলিয়াছিল--“না।” এই প্রামঙ্গে এ দেশে ইংরেজ বাঙালীর AVE ও পরস্পর সামাজিক সম্মি- লনের বাধা MSW OE তরফ্রে রীতিমত fawel উপস্থিত ssa |হারান কহিলেন--“বাঙালীরই দোষ। আমাদের এত কুসংস্কার ও কুপ্রথা, যে, আমরা ইংরেজের সঙ্গে মেলবার যোগ নই।”গোরা কহিল, “যদি তাই সত্য হয় তবে সেই অযোগ্যতা সত্বেও ইংরেজের সঙ্গে মেলবার জন্যে লালায়িত' হয়ে বেড়ানো আমাদের পক্ষে লজ্জাকর।”



Leave a Comment