কল্যাণী | Kalyani

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
কল্যাণী ৬নিখিল যৃদুহেসে বলে-_কে বললে জোর নেই ? খু--ব আছে।--ছাই আছে!মল্লিনাথ ইত্যবসরে নিখিলের হাত থেকে কার্ড টেনে নিয়েছে--দেখি দেখি এটা কি ব্যাপার! বারে--সবাইয়ের আলাদা কার্ড? বাবার, মার, আমার, দিদির! আমরাও যাবে নিখিলবাবু ?নিখিল বলে ও'ঠ-- নিশ্চয়! সকলে যাবে বলেই তো-_ তুমি, মাসীমা, ভর্কচূড়ামণি সবাই যাবে।-দিদি যাবে? ss! তাহলেই হয়েছে! মা যেতে দিলে তো!_লাঃ মাসীমা ও যাবেন ।afeaty হতাশার অভিনয় করে বলে--মা? মা কি করে যাবেন? আজ সমন্ধ্যবেল৷ যে মার পাকাদেখা !নিখিল স্তম্ভিত বিস্ময়ে বলে--মার পাকাদেখা !!কিশোরীটি বিরক্ত ব্যাকুল ভাবে বলে--আঃ এতো বোকার মত কথা বলিস!.''মার সইয়ের মেয়ের পাকাদেখা ।---ওই যেআসছেন মা-- ' তরুবালাকে প্রণাম ক*রে নিখিল বলে--কি way, আজই আপনার সইয়ের মেয়ের পাকাদেখ] পড়লো ?তরুবালা ভারিক্কিচালে বলেন--কেন, আজ কি ?মল্লিনাথ শশব্যস্তে বলে ওঠে--নিখিলবাবুর কলেজের বার্ষিক উৎসব- SRA, ATA করতে এসেছেন। বাবার, তোমার, দিদির, আমার, সকলের নেমন্তন্ন ।'*'বাবার কথা বাদ দাও, তোমার তো ওই সইয়ের মেয়ে, বাকী রইলাম কুল্পে--দিদি, আর আমি !'*'যা দেখছি, এই ছেলেমানুদ দুজনকেই একলা যেতে হবে আর কি!নিখিল যেন AHL] হয়ে গেছে এমনভাবে বলে--আপনি যাবেন না



Leave a Comment