স্বদেশীয় ভারত-বিদ্যা পথিক [সংস্করণ-১] | Swadeshiya Bharat-Vidya Pathik [Ed. 1]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
কালনা ত্যাগ করিয় আসিয়া সংস্কৃত কলেজে অধ্যাপনা কালে তারানাথ পুস্তক রচনা ও স্বগৃহে ছাত্রদ্বিগকে বিদ্যাদানে ব্রতী থাকিলেও ব্যবসায় ত্যাগ করেন নাই। কালনায় বস্ত্র ও স্বর্ণা- লঙ্কারের দোকান, সিউড়িতে বস্তের দোকান, বীরভূমে ১০,০০০ বিঘা জমি বন্দোবস্ত লইয়া চাষ, coo গরু রাখিয়া উৎপন্ন qu কলিকাতায় বিক্রয় প্রভৃতি কাজে তাহার বহু অর্থ নিয়োজিত থাকিত। অর্থোপার্জনের নানা উপায় সম্বন্ধে তারানাথের বুদ্ধি প্রখর ছিল কিন্তু তিনি মন্ুয্যচরিত্রাভিজ্ঞ ছিলেন না, অসাধু কর্মচারীদের উপর বিশ্বাস ন্যস্ত করার ফলে তাহার ব্যবসায়ে প্রচুর ক্ষতি হয়। ১৮৬২ খ্রীষ্টাব্দে তিনি লক্ষাধিক টাকার খণজালে জড়াইয়া পড়েন। এই সময় সংস্কৃত কলেজের অধ্যক্ষ ছিলেন স্বনামধন্য সংস্কৃতজ্ঞ পণ্ডিত এডওয়ার্ড বাইলস্‌ কাউয়েল (১৮২৬-১৯০5৩) | কাউয়েল তারানাথের একান্ত গুণমুগ্ধ ছিলেন । ইনি উদ্য়নাচার্ধ রচিত ‘ots কুমুমাগ্ুলি” গ্রন্থের ইংরাজী অনুবাদের ভূমিকায় জয়নারায়ণ তর্কপঞ্চানন ( সংস্কৃত কলেজের অপর একজন অধ্যাপক ) ও তারানাথ সম্বন্ধে এই মন্তব্য প্রকাশ করেন 3 “The two most learned Hindus I have met during my residence in India” | কাউয়েল তারানাথকে সংস্কৃতের alae বিশ্বকোষ ( Encyclopaedia ) জ্ঞান করিতেন | লোকের নিকট তিনি বলিতেন যে, সংস্কৃতে এমন কোন AE নাই যাহা তারানাথের SHS নহে।ছাত্র ও জনসাধারণের স্মবিধার্থে ছুজ্াপ্য সংস্কৃত ব্যাকরণ, কাব্য, অলঙ্কার প্রভৃতি মুদ্রিত করাইবার জন্য এই সময় কাউয়েল তারানাথকে পরামর্শ দান করেন। ইতিপূর্বে তারানাথ মাঘ রচিত 'শিশুপাল বধ”, ভারবি রচিত “কিরাতাজুনীয়ম্‌* (১৮৪৭ ), SIGS রচিত “মহাবীর চরিতম্‌* (১৮৪৭) ও কাঞ্চনাচার্য রচিত নঞ্জয় egy’ (১৮৫৭ ) স্বকৃত টাকাসহ প্রকাশ করিয়া অর্থ ও খ্যাতি লাভ-করেন। পরম হিতৈযষী Was ও উপরিতন কর্মচারী কাউয়েলের পরামর্শ৭ তারানাথ তর্কবাচম্পতি



Leave a Comment