ভারতচন্দ্র-গ্রন্থাবলী [ভাগ-২] | Bharatchandra-granthabali [Pt. 2]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
ভূমিকা | . 34কাব্যের শেষ act কবির জীবনীর অনেক উপকরণ ate | কাশ্মীরে বিদ্যাশিক্ষা করিয়৷ বিহলন দেশভ্রমণে বাহির হন 'রাজতরঙ্গিণী” (৭-৯৩৬ ) হইতেও জানা যায়; বিহলন anit কলশের সময়ে কাশ্মীর ত্যাগ করিয়া মথুর, কান্যকুজ্জ, প্রয়াগ ও বারাণসী দর্শন করেন। কিছু কাল তিনি চেদীরাজ কর্ণের রাজসভায় থাকিয়৷ পশ্চিম-ভারত অভিমুখে যাত্রা করেন। বিহলন সম্ভবতঃ অনহিলবাড়ে যথোপযুক্ত সম্মান পান নাই; কারণ, দেখা যায় তিনি তাঁহার কাব্যে গুজ্জরদিগের বেশভূষ, ভাষা ও আচার-ব্যবহারের নিন্দা করিয়াছেন। সেখান হুইতে বিহলন সমুদ্রপথে দাক্ষিণাত্যে গমন করেন। চালুক্য ম্বপতি বিক্রমাদিত্য ত্রিভুবনমনল্লপ বিহলনকে “বিদ্ঠাপতি” উপাধি দিয়া তাহার সভাকবি করিয়াছিলেন। বিহুলন-কাব্যের মহিলপত্তন যদি অনহিলপত্তন বা অনহিলবাড় হয়, তাহা হইলে সেখানে রাজ! বীরসিংহেরও অস্তিত্ব প্রয়োজন fee 'রাসমালা” হইতে প্রমাণ করা যায় যে, বিক্রমানঙ্কদেব বা বিক্রমাদিত্য ত্রিভুবনমল্লের সমসাময়িক বীরসিংহ নামীয় কোনও নরপতিই সেখানে রাজস্ব করেন ate! বিহুলন-কাব্য বিহলনের রচিত, এরূপ ধারণাও ভ্রান্ত ; কারণ, কবি নিজের এবং নিজের স্ত্রী সম্বন্ধে স্বয়ং এরূপ কাহিনী লিখিতে পারেন না। fee ও চৌরকবিকে অনেকে অভিন্ন মনে করেন; আমাদের বিশ্বাস, এ ধারণাও ate চৌরকবির উল্লেখ চৌর এই নামেই পাওয়া যায়। fee চৌরকবি এক ব্যক্তি হইলে প্রায় সমসাময়িক কবি জয়দেব চৌরকবির প্রশস্তিকালে তাহার উল্লেখ করিতেন = চৌরকবিকে আরও প্রাচীনতর কবি বলিয়া মনে হয়। কাশ্মীর-সংস্করণ “'চৌরপঞ্চাশিকা'র প্রারম্ভে “অথ চৌরীস্থুরতপঞ্চাশিকা পণ্ডিত বিহলনকৃতা” এইরূপ লিখিত আছে। এই “চৌরীস্মুরতপঞ্চাশিকা' :



Leave a Comment