আরোহী | Arohi

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
বিচার সভা। উলেমাদের ডাকা হয়েছে। দারা যখন পূর্ণ ক্ষমতায়, এই উলেমারা বড় বেকায়দায় ছিলেন। এইবার সুযোগ এসেছে। মুসলমান তুমি, হিন্দুধর্মে তোমার কিসের এত aie: তোমার আঙুলে একটা আংটি, সেই আংটিতে হিন্দি অক্ষরে ‘ate’ শব্দটি খোদাই করা আছে। হিন্দু সাধুসম্তদের সঙ্গে কেন এত মেলামেশা! হিন্দুদের ধর্মগ্রন্থ 'গীতা-র অনুবাদ করলে, অনুবাদ করলে “উপনিষদ*”। এ ছাড়াও হিন্দুদের অনেক ধর্মগ্রন্থ তুমি ফারসি অনুবাদ করিয়েছ। ইসলামে তোমার বিশ্বাস নেই। পয়গম্বরের 'মিরাজ-ই-জিসমানি” তুমি বিশ্বাস করো না। হিন্দুদের “কেশব রাই” মন্দিরে পাথরের রেলিং বসালে কেন? ' শরিয়তের অনুশাসন তুমি মান না। অবিশ্বাসী আর কাফেরদের সঙ্গে তোমার ঘনিষ্ঠতা। তুমি ইসলামের শত্রু। তুমি কী করে 'মাজমা-উল্‌-মাহরায়েন”-এর মতো একটা বই লিখলে? হিন্দু আর মুসলমান ধর্মকে এক করে ফেললে!প্রাণদণ্ড। এই পৃথিবীতে দারার বেঁচে থাকা চলবে ATIআরঙ্গজীব দরবার ডাকলেন। মালিক জিওয়নকে তার বিশ্বাসঘাতকতার জন্যে সবিশেষ সম্মান জানানো হল। হাজার সৈন্যের মনসবদার হলেন তিনি। মিছিল নামল পথে। জিওয়ন বেরিয়েছেন নগর পরিক্রমায়। সেলাম আর কুর্নিসের বদলে শহরের ক্ষিপ্ত মানুষ ছুড়তে লাগল ইট, পাথর, কাদা, ছেঁড়া কাপড়। মিছিলের অনেকে আহত হলেন। ঢালের আড়ালে মাথা বাঁচালেন জিওয়ন। বাড়ির ছাদের ওপর থেকে মহিলারা ছাই ফেলতে লাগলেন। মাটির পাত্রে ভরা মলমৃত্র। প্রায় বিদ্রোহ। রাজধানী Fre |কতোয়াল তার সান্ত্রীদের নিয়ে ঝীপিয়ে না পড়লে মিছিলের একটি লোকও বাঁচত কি না সন্দেহ। হতাহত হল অনেকে।আরঙ্গজীব সেই রাতেই আদেশ দিলেন, আর এক মুহূর্তও দেরি নয়। নিয়ে এস দারার ছিন্ন Pe | ডাক পড়ল ঘাতক নজর কুলির। এই লোকটি সাজাহানের আশ্রিত ছিল। প্রতিপালিত। ডাক হল সফি খানকে। তিনি তত্ত্বাবধায়ক। আজ রাতে রক্ত ঝরবে খাওয়াসপুরা ভবনে। রাতের তারারা হবে নীরব সাক্ষী। আগস্ট APT) ভীষণ গরম।সন্ধে থেকেই দারার APR Ta বলছিল, আজ একটা কিছু হবে। প্রকৃতি বড় নিস্তব্ধ, রাত বড় Feta) আজকে বিষ মেশানো খাবার আসতে পারে সিপির। এস কন্দমূল সেদ্ধ করে খেয়ে রাতটা কাটাই।আগুন জ্বলছে, পাত্রে সেদ্ধ হচ্ছে কন্দমূল। যার সম্রাট হওয়ার কথা! ঘরে অনেক মানুষের ছায়া। এরা কারা? TAS! এই তো সেই জল্লাদটা নজরবেগ।১৮



Leave a Comment