চিরন্তন সীমানা | Chirantan Simana

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
করেন না। তিনি কিন্তু ক্যারীবীয়ান অঞ্চল আবিষ্কার করে উপনিবেশ গঠনে আশ্চর্য কর্মতৎপরতার পরিচয় দিয়েছিলেন |কবি, পণ্ডিত এবং আবিষ্কারক ota ওয়ালটার র্যালে, তিনি ভার্জিনিয়া এবং নর্থ ক্যারোলাইনায় উপনিবেশ গঠনে উদ্যোগী হন। আলু এবং তামাকের সঙ্গে ইউরোপের তিনিই পরিচয় ঘটিয়েছেনcma আবিষ্কারক ফ্রান্সিস্কো৷ পিজারো ছিলেন সম্পূর্ণ ভিন্ন ধরনের মাহুযষ। শূকরপালক হিসাবে জীবন শুরু করে তিনি শেষ পর্যন্ত পেরুর বিজেতা হয়েছিলেন এবং এই বিজয়স্থত্রে Bais তীর নৃশংসতা এবং নির্যাতন তাঁর নামটাকেই reper atone পরিণত করেছে।এই সব মাছষ এবং যে সব গুপনিবেশিক তাঁদের wat ক্রেছিলেন তারা] সবাই ব্যক্তিত্ব এবং সাধারণ মনোভঙ্গীর দিক থেকে বিভিন্ন ছিলেন, তবে এক জায়গায় তাঁদের মিল ছিল। পুরাতন পৃথিবীর সীমান্ত অতিক্রম করার, নিজেদের অদৃষ্টের উন্নয়ন করার, এবং নিজেদের সন্ধীর্ণ tet থেকে বাইরে আসার বাসনা তাঁদের সকলের সমান উদগ্র ছিল।ইউরোপীয়েরা কি কলাকৌশল, বিশেষ জ্ঞান বা মনোভংগী সঙ্গে নিয়ে এসেছিলেন ? অনেক দিক থেকেই আমেরিকার এই আগস্তক বাসিন্দা ছিল অভিনব মানুষ। ব্রিটেনে কিংবা গলে ( BIH) ) রোমানদের মত এই সব গুপনিবেশিক কোন সৈনল্যবাহিনীর অংশবিশেষ ছিলেন না, এমন কি অনেক ক্ষেত্রে তারা] কোন রাষ্ট্রের প্রতিনিধি ছিলেন না।একেবারে প্রথম দিকে যে সব ইউরোপীয়ের। আমেরিকায় এসেছিলেন তারা ছাড়া, স্বদেশে ফিরে যাওয়ার বাসনাও কারো ছিল না। স্বদেশ তাঁদের কাছে সাধারণতঃ ছিল এই নতুন মহাদেশ । এক মহাসমূদ্রের ব্যবধান তাদের সেই একদা-পরিচিত জীবন থেকে বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে। এই অবস্থায় তাঁরা যে বিশেষ অসুখী ছিলেন তা নয়। বরং তাঁদের অনেকেই পুরাতন পৃথিবীর অত্যাচারের হাত থেকে নিষ্কৃতি লাভের আশায় স্বদেশ ত্যাগ করে চলে এসেছিলেন |অনেকে আবার, যেমন ইংরাজ শুচিবাণীশদের দল ( পিউরিটান ), তাঁদেব মনোমত প্রথায় উজন-পূজনের স্বাধীনতা] ভোগ করার উদ্দেশ্যে চলে এসেছিলেন-- কিন্তু তারাই আবার যে মুহূর্তে বেশ গুছিয়ে নিযে নিজেদেরv



Leave a Comment