লখীন্দর দিগার | Lakhinandar Digar

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
4 লথীন্দর দিগাররোদ্দুর স্বচ্ছ হয়ে উঠেছে এরই মধ্যে। কাছে দূরে ঘাসের ওপর cy শিশির ছিলো, তার চিহ্ন নেই। ওদের শীত কেটে গেছে SAR গরম-বোধ হচ্ছে শরীরে। হাতের পাঁয়ের মাংল টনটন করে উঠছে, টান হয়ে পড়েছে। একটু জিরিয়ে তামাক টেনে ঠিক করে নিতে হবে।পরাণ আগে গিয়ে উচু আলটায় রাস্তার ধারে বসে। কলকেতে তামাক সেজে বলে, “BRON লখীন্দদাদা, লাও ।” গোরুগুলো জোয়াল-কাধে ঠায় দাড়িয়ে আছে। যেমনটি দাড় করিয়ে রেখেছে ওদের.। জাবর কাটছে আস্তে Acs |দূরে কেঁচকাপুরের গ্রাম পেরিয়ে একসাব মেয়ে-পুরুষ আসছে । মাথায় ওদের মাছের ঝাঁকা, মাছ বিক্রী করতে যাচ্ছে। বাঁকা মাথায় করে মেছুনীদের পথ চলবার একরকম অদ্ভুত GAN আছে। ছুলে দুলে গমকে গমকে এগোবে ওরা। স্থগঠিত তাগা-পরা হাত ছুটো আগে পিছে ছুলিয়ে তাল রাখবে চলার। মাথার ওপর ঝাঁকাটাকে ধরার কোন প্রয়োজনীয়তা নেই, এমনিই অভ্যাস হয়ে গিয়েছে |গ্রাম শেষ হয়েছে যে তাগ-দিঘীটার কাছে, সেখানে বীক ফিরলো ওর | সেদিক থেকে চোখ ফিরিয়ে নিলে লবীন্দর |“বেলা অনেক হল গো । মেছো-মাগিরা মাছ বিক্রী করতে লিয়াচ্ছে ।” “তাই দেখি ।”হঠাৎ একট। ব্যাপার ঘটে। রামের বীয়া-গোরুটা মাটিতে মাথা নামিয়ে শিং ঘসছিলে!। জোযরাল থেকে কোনো-রকম ঘাড়টা খুলে যায় ওর ৷ আর তারপর লাঙল থেকে সরে গিয়ে একটু ইতস্তত করে; প্রথমটা কী করবে ভেবে পায় না। তারপর CATA দৌড় দেয়। একটু দূরে গিয়ে কয়েক পাক লাফিয়ে, aries) ওপরে তুলে, fae নামিয়ে |



Leave a Comment