যে গল্পের শেষ নেই [খণ্ড-১] | Je Galper Shesh Nei [Vol. 1]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
গভীর অরণ্য আজকের দিনে সেইখানে গড়ে উঠেছে বিরাট বিরাট সহর। চিম্নীর চূড়োগুলে! কী দারুণ উচু, বাস্রে ! মনে হয় আকাশটাকে বুঝি ফুটো! করে দেবে। পাচশো বছর, আগে এ-রকম উঁচু উচু চিমনীর কথা কেউ ভাবতে পারতো?চারদিকেই এই রকম। নিত্যনতুন। তাহলে el কোথায় ?অথচ বুড়ীই। কেননা, দেড়শো কোটি বছর বয়েসট৷ তো চারটিখানি কথা নয়। আর হিসেব করে দেখা যাচ্ছে পৃথিবীর বয়েস মিদেন পক্ষে অতোগুলো বছর তো হবেই |Tor ofedia fa: কথা হল, পৃথিবীর বয়েস যে বয়েস কতো P এতোখানি হয়েছে Bi জানা ০ CITA] কেমন করে? নিশ্চয়ই pel হিসেব acai কিন্তু সে-হিসেবটা কেমনতরো? ওঃ, সে-সব ভারি মজার মজার হিসেব | একটা নমুনা দিচ্ছি। শোনো | ধরো, তুমি আর আমি রাস্তায় বেড়াতে বেরিয়েছি। পথে এক বৃড়ীর সঙ্গে দেখা। তার মাথায় অনেক সাদা চুল। আর বুড়ী হুয়ত আমাদের বললো, তার চুল পাকবার গল্পটা ভারি মজার। তার নাকি জন্ম হবার পর থেকেই প্রতি বছর হাজারে একটা করে চুল পেকেছে। তারপর,9



Leave a Comment