গৌতমসূত্র বা ন্যায় দর্শন ও বাৎস্যায়ন [খণ্ড-২] | Goutamsutra Ba Nyay darshan O Vatsyayana [Vol. 2]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
১ Ze] বাঙস্তায়ন Stat 6স্থলের Oty স্তায়স্থত্রকার Tey গোতমও তাহার প্রথম সথত্রের পাঠক্রম পরিত্য tot করিয়া আর্থ wae সর্বাগ্রে সংশয়েরই পরীক্ষা করিয়াছেন। কারণ, প্রথম সুত্রে প্রমাণ ও প্রমেয়ের পরেশর পঠিত হইলেও পরীক্ষা-মাত্রই যখন সংশয়পুর্বাক, প্রমাণ-পরীক্ষা-কার্য্যেও যখন প্রথমে সংশয় আবপ্তক, তখন WHATS সর্বাগ্রে সংশয়েরই পরীক্ষা কর্তব্য। পরীক্ষা-প্রকরণে আর্থ ক্রমানুসারে ংশয়ই সকল পদার্থের AAS! সুতরাং উদ্দেশক্রম বা পাঠক্রম আর্থ ক্রমের দ্বারা বাধিত হইয়াছে |আপত্তি হইতে পারে যে, পরীক্ষা-মাত্রই সংশয়পূর্বাক হইলে সংশয়-পরীক্ষার পূর্বেও সংশয়BIS, সেই সংশয়ের পরীক্ষা করিতে আবার সংশয় SAIS, এইরূপে অনবস্থা-দোষ হইয়া পড়ে । এতছুতরে তাৎপর্য্যটীকাকার বলিয়াছেন যে, wey তাঁহার কথিত সংশয়-লক্ষণের পরীক্ষাই এখানে করিয়াছেন, ইহা সংশয়-পরীক্ষা নহে। বস্তুতঃ Tale যে সংশয়ের পাঁচটি বিশেষ কারণের উল্লেখ করিয়| সংশয়ের পাঁচটি বিশেষ লক্ষণ বলিয়া আপিয়াছেন, সেই কারণগুলিতেই সংশয় ও পুর্বপক্ষ উপস্থিত হওয়ায় তাহারই নিরাস করিতে সেই কারণগুলিরই পরীক্ষা করিয়াছেন। তাহাকেই ভাষ্যকার প্রভৃতি সংশয়-পরীক্ষা বলিয়া উল্লেখ করিয়াছেন । Ata AMA মনোগ্রাহু, সংশয়- স্বরূপে কাহারও কোন সংশয় বা বিবাদ msi Woals সংশয়-স্বরূপের পরীক্ষার কোন কারণই নাই। তবে সংশয়ের কারণগুলিতে সংশয় বা বিবাদ উপস্থিত হইলে সেই সেই কারণ-জন্ত ২শয়েও নেইরূপে বিবাদ উপস্থিত হয়; সুতরাং সংশয়ের সেই কারণগুলির পরীক্ষাকে ফলত: সংশয়-পরীক্ষ! বলা যাইতে HH) তাই ভাষ্যকার তাহাই বলিয়াছেন। eats তাষ্যকারের & কথায় কোন আপত্তি বা দোষ নাই। কিন্তু/ভাষ্যকারের মুল কথায় একটি গুরুতর আপত্তি এই a, ভাষ্যকার নির্ণয়-স্থত্রভাষ্যে বলিয়াছেন যে, নির্ণয়মাত্রই সংশয়-পুর্বাক, এরূপ নিয়ম নাই.। প্রত্যক্ষাদি স্থলে সংশয়-রহিত নির্ণয় হইয়া থাকে এবং বাদ-বিচারে ও শাস্ত্রে সংশয়-রহিত নির্ণয় হয়, সেখানে Mayas নির্ণয় হয় না (১অ*, ১আ*, ৪১ RFS WI)! এখানে ভাষ্যকার মহধযির Frieza Cas করিয়া সেই নির্ণয় পদার্থকেই পরীক্ষা বলিয়া, পরীক্ষামাত্রই সংশয়-পুর্বাক, এই যুক্তিতে সর্বাগ্রে সংশয়-পরীক্ষার কর্তব্যতা সমর্থন করিয়াছেন, ইহ! কিরূপে সঙ্গত হয়? নির্ণয়মাত্রই যখন সংশয়পুর্বাক নহে, তখন নির্ণয়রূপ পরীক্ষামাত্রই সংশয়পুর্বক, ইহা কিরূপে বলা যায় ? পরস্ত মহর্ষি এই শাস্ত্রে যে সকল পরীক্ষা করিয়াছেন, সেগুলি stats ; শীক্তদ্বারা যে Sealy, তাহা কাহারও সংশয়পুর্বক নহে, এ কথা ভাষ্যকারও বলিয়াছেন। তাহা হইলে এই MRT পরীক্ষায় সংশয় Oe না হওয়ায় এই শাস্ত্রে পরীক্ষারস্তে সর্বাগ্রে সংশয়-পরীক্ষার তাষ্যকারেক্ত কারণ কোনরূপেই সঙ্গত হইতে পারে না। . উদ্দেশক্রমনুদারে স্্্ীগে প্রমাণ পরীক্ষাই মহর্ষির কর্তব্য। আর্থ ক্রম যখন এখানে সম্ভব নহে, তখন পাঠক্রমকে বাধা দিবে কে?- উদ্যোতকর এই পুর্বপক্ষের উত্থাপন করিয়া এতহুত্তরে বলিয়াছেন যে, নির্ণয়মাত্রই সংশয়- পূর্বক নহে, ইহ! সত্য; কিন্তু বিচারমত্রই সংশয়পুর্াক। শাস্ত্র ও বাদে যখন বিচার আছে, তখন 'অবস্ত তাহার পুর্বে সংশয় আছে। সংশয় ব্যতীত নির্দয় হইতে পারিলেও বিচার কখনই হইতে



Leave a Comment