বুদ্ধিতে যার ব্যাখ্যা চলে না [সংস্করণ-২] | Buddhite Jaar Byakkhya Chole Na [Ed. 2]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
বুদ্ধিতে যার ব্যাখ্যা চলে Alলিথিক আদিমযুগে। waa অ-শরীরী তত্বে যারা আস্তিক্য- বাদী, তাদের সঙ্গে আজ আর তর্ক চলবে না--চরম নিষ্পত্তির জন্যে হাতাহাতি করতে হবে।তবু সব কিছু বৈজ্ঞানিক-তত্ত্ব তর্কের মধ্যেও একট “কিন্তু থেকেই যায়। এমম কতকগুলে৷ প্রশ্ন ওঠে--যাদের উত্তর মেলে না। তার মানে এই নয় যে কোনদিন তাদের উত্তর একেবারেই AEM যাবে ali হয়ত বিজ্ঞানের ব্যাপ্তি একদিন সব কিছুর নিঃশেষ সমাধান করে দেবে। কিন্তু যতক্ষণ তা না হচ্ছে ততক্ষণ কতকগুলে। বিচিত্র aa আমাদের মনকে নানাভাবে আন্দোলিত করতে থাকে |এই রকম একট! Va এখানে আমি wa) এ ভূতের গল্প feat জানি না। চোখ কিংবা মনের ভুল কিন, সে সম্বদ্ধেও কোন রায় দিতে আমি প্রস্তুত নই। শুধু a ঘটেছে, সেইটুকুই বলব। যার যা খুশি, তিনি সেইভাবেই এগুলিকে ব্যাখ্যা করতে পারেন |প্রায় বারো-তেরে৷ বছর আগেকার Sal) তখন পশ্চিম বাংলার একটা ছোট গ্রাম থেকে আমি শহরে ডেলি- প্যাসেঞ্জারি করতুম। সাইকেলে করে আসতে হত আট মাইল দূরের স্টেশনে। একটা ছোট দোকানে সাইকেল Bal রেখে আমরা ট্রেন ধরতুম, সন্ধ্যের গাড়িতে ফিরে আবার সাইকেল নিয়ে গ্রামে MAGA |'আমরা' বললুম এই Sry যে ডেলিপ্যাসেঞ্জারি করতুম-১৪



Leave a Comment