অক্ষয়-সুধা [সংস্করণ-১] | Akshay-sudha [Ed. 1]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
গা বা বা aহয় নাই। কিন্তু এই আলোচনা বিশেষরূপে steve) আমরা এই উদ্দেশেই ব্গসাহিত্যের স্বপ্রসিদ্ধ লেখকগণের রচনা-রীতি আলোচনার চেষ্টা করিতেছি।কোনও স্বপ্রসিদ্ধ সাহিতা-শিল্পী সম্বন্ধে যথার্থরূপে আলোচনা! করিতে হইলে, তাহার সাহিত্য-সাধনার উদ্দেশ্য কি, তাহা নির্ধারণ say আবপ্তক। সাহিত্যালোচনার দ্বারা কি হয়? মানবের হৃদয়বৃত্তি ও মনোবুত্তি অনুশীলিত ও মার্জিত হয়, তাহার uote ও উপভোগ-শক্তি ব্যাপ্তি ও গভীরত! লাভ করে। স্বভাবের শিশু মানব, সাহিত্য আলোচনা দ্বার|৷ একটি উন্নততর অবস্থায় আরোহণ করিয়া, মানব-জীবনের ধন্ততা ও পূর্ণতা লাভ করে। gear, সাহিত্যশিল্পী মানব জীবনের গুরু ও পথপ্রদর্শক । তিনি বন্ধুর ন্যায় হাস্তমুখে ও মিষ্টভাবে জনসাধারণের আপনার জন হইয়া, তাহাদের সহিত মিলিয়া মিশিয়া থাকিতে পারেন; কিন্তু তাহার একটি উন্নততর লক্ষ্য থাকা BS) CAs লক্ষ্য জ্ঞাতসারে বা অজ্ঞাতসারে তাঁহার হৃদয়ে সর্বদাই প্রতিবিশ্বিত হইতেছে। আর তিনি নব নব সৌন্দর্য্যের we করিয়া, মানবকে সেই আদর্শ বা লক্ষ্যের অভিমুখে চালিত করিয়া! লইয়া যাইতেছেন। সাহিত্যশিল্পে ইহার নাম--ললক্ষ্য লা আলম্্শ।সাহিত্য-শিল্পীর যেমন একটি we লক্ষ্য থাকা প্রয়োজন, তেমনি সেই লক্ষ্যে মানবকে পরিচালিত করিবার একটি সুনির্দিষ্ট orate থাকা আবশ্যক । মানবের আলোচনার বিষয় অসংথ্য। আমরা আমাদের ভাবুকতার দ্বারা, প্রতিদিন বিবিধ প্রকার বিষয় ও ব্যাপারের সংস্পর্শে আসিতেছি। সমাজ, ধর্মনীতি, দর্শন, বিজ্ঞান, কাব্য, প্রক্কৃতির নব নব সৌন্দর্য্য ও রহস্ত, নরনারীর বিচিত্র প্রকারের জীবনযাত্রা পদ্ধতি, অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যতের, ইহলোকের ও পরলোকের, নিকটের ও দুরের, বছ বহু বিষয় ও ব্যাপার আমাদিগকে attest কীাদাইয়া, সুখী করিয়া



Leave a Comment