কর্ম্ম-কথা [সংস্করণ-২] | Karma Katha [Ed. 2]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
মুক্তির পথ ৬aft পরম পুকুযার্ত-লাতে তোমার বাছা থাকে, তবে বুদ্ধিবৃত্তিকে নিরোধ কর, আর জ্ঞানের অন্বেষণে দিনক্ষয় করিও না; ব্যক্তিবিশেষে ও বাঝ্য- বিশেষে বিশ্বাস স্থাপনা করিয়া জীবনের পথে চিনে পরম পুরুষার্থ লব্ধ লইবে।বস্তুতই মানবের মত হতভাগ্য জীব ছুনিয়ার মধ্যে ছুর্লভ। মনুষ্য ক্ষুদ্র ও দুর্বল; এবং সনাতন নিয়মমতে যে ক্ষুদ্র সে দুর্ভাগ্য, যে দুর্বল সে দীন। তাহার অক্ষমতার কারণে সে পরের নিকট কুপাতিক্ষার ay চিরকাল লালায়িত ও তাহার পরমুখপ্রেক্ষিতার ফলে চিরকাল প্রতারিত | মানবদন্তান প্রকৃতির হস্তে বিবিধ বিধানে উৎপীড়িত হইয়া mera ত্রাহিত্বরে ডাকিয়! আসিতেছে এবং বে কোন ব্যক্তি আপন মুর্থতা ও নির্লজ্জতার উপর নির্ভর করিয়া আপনাকে এই সনাতন ছুঃখব্যাধির একমাত্র চিকিৎসক বলিয়াজাহির করিয়াছে, তাহারই প্ররোচনায় ate ws BAUS কুপথ্য সেবন করিয়৷ প্রতারিত হইয়াছে।“জ্ঞান হইতে দুঃখের উৎপত্তি হইয়াছে, সচ্ছন্দে স্বীকার করিতে পারি; কিন্তু সেই ছুঃখবন্ধন হইতে মুক্তিলাভের জন্য জ্ঞানের আলোক ত্যাগ করিয়া অজ্ঞানের অন্ধকারে প্রবেশ করিতে হইবে, এইরূপ আদেশ নতশিরে বহন করিতে TES মোহমুক্ত মানব নিশ্চয়ই অসম্মত হইবে।জ্ঞানের পথ পরিহার sal ছুঃখনাশের উপায় অন্বেষণ করিতে ee 'সৌভাগ্যক্রমে সর্বত্র স্বজাতির মধ্যে এই বাক্য স্বীকৃত হয় নাই। অপূর্ণ জ্ঞানে যাহার উৎপত্তি, জ্ঞানের পুর্ণবিকাশই তাহার ধ্বংসের একমাত্র উপায়, এই মত অন্ততঃ একটা বৃহৎ সমাজে গৃহীত হইয়াছে।. তবে জ্ঞানের পূর্ণতাঁয় ate ” নবুত্তি প্রকৃতপক্ষে সম্ভবপর কি না, ইহা আলোচনাযোগ্য। TOA দেখা যায়, জ্ঞানের বিকাশের সহিত দুঃখের মাত্রা বাড়িয়া যায় বলিয়াই বোধ হয়। নানা ভাবে এই প্রশ্নের উত্তর দিবার চেষ্টা হইয়াছে।



Leave a Comment